ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, গাজায় হামলা চলবেই। স্থানীয় সময় শনিবার টিভিতে দেওয়া এক ভাষণে নেতানিয়াহু এ ঘোষণা দেন। 

তিনি বলেন, যত দিন প্রয়োজন, তত দিন হামলা চলবে। সাধারণ মানুষকে সুরক্ষা দিতে সবকিছু করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন। খবর আল জাজিরার

নেতানিয়াহুর বলেন,  চলমান সংঘর্ষের জন্য ইসরায়েলি বাহিনী দায়ী নয়। বরং এ হামলার জন্য হামলাকারী দায়ী। 

গত সোমবার থেকে ইসরায়েল ও গাজার হামাস বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ তীব্র রূপ নিয়েছে। ২০১৪ সালের গাজা যুদ্ধের পর ইসরায়েল ও হামাসের একে অপরের বিরুদ্ধে এটিই সবচেয়ে বড় আক্রমণের ঘটনা।

এই হামলায় এখন পর্যন্ত ১৪৯ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে শিশু ৪১ জন। এছাড়া ইসরায়েলের হামলায় আহত হয়েছে আরও ৯৫০ জন।

রোববার ভোরেও গাজায় ইসরায়েলের বিমান হামলায় কমপক্ষে চারজন নিহত হয়েছেন। অন্যদিকে, ফিলিস্তিনিরা তেল আবিবকে লক্ষ্য করে রকেট ছুড়েছে। 

শনিবার ইসরায়েলি বাহিনী গাজায় অবস্থিত ১২ তলা একটি ভবন হামলা চালিয়ে গুঁড়িয়ে দেয়। ওই ভবনে এপি ও আল–জাজিরার কার্যালয় ছিল। ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর দাবি, আল জালা নামে ওই ভবন তাদের হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিল। সেখানে হামাসের সামরিক বাহিনীর কার্যালয় রয়েছে। এ কারণে হামলার আগে তারা ওই ভবন থেকে মানুষকে সরে যেতে সতর্ক করেছিলেন।

নেতানিয়াহু বলেন, হামাসের সঙ্গে যুক্ত নয় এমন ব্যক্তিদের আগেই সেখান থেকে বের করে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে ইসরায়েল।

লাগাতার হামলা থেকে জীবন বাঁচাতে সীমান্তের কাছে বসবাস করা হাজার হাজার ফিলিস্তিনি তাদের বাড়ি ছেড়ে চলে যাওয়া শুরু করেছে।

জাতিসংঘ জানিয়েছে, উত্তর গাজায়  প্রায় ১০ হাজার ফিলিস্তিনি তাদের বাড়িঘর ছেড়ে গেছে। অনেকে জাতিসংঘ পরিচালিত স্কুলগুলোতে আশ্রয় নিয়েছে। 

যুক্তরাষ্ট্র, জাতিসংঘ এবং মিসরের দূতেরা পরিস্থিতি শান্ত করতে কাজ করছেন। তবে এ পর্যন্ত পরিস্থিতির কোনো উন্নতি হয়নি। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ রোববার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনায় বসবে।


বিষয় : বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ইসরায়েল হামলা

মন্তব্য করুন