করোনায় বিপর্যস্ত ভারতে মৃত্যু কিছুটা কমল; কমল ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার সংখ্যাও।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে আরও এক হাজার ৫৮৭ জনের। আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৬২ হাজার ৪৮০ জনের। কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে শুক্রবার সকালে এসব তথ্য দিয়েছে ভারতীয় একাধিক সংবাদ মাধ্যম।

দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেহাল হয়ে পড়া ভারতে সংক্রক্রমণ ও মৃত্যু প্রতিদিনই বাড়ছে। তবে কিছুদিন আগে যেখানে দিনপ্রতি শনাক্ত ছিল ৪ লাখ এবং মৃত্যু ছিল চার হাজারের ওপরে; সেখানে এই দুই ক্ষেত্রেই সম্প্রতি কিছুটা স্বস্তির খবর মিলছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান অনুসারে, দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ২ কোটি ৯৭ লক্ষ ৬২ হাজার ৭৯৩ জনে। সবমিলিয়ে মৃত্যু দাঁড়িয়েছ ৩ লাখ ৮৩ হাজার ৪৯০ জনে।

প্রায় দু’মাস পর ভারতে দৈনিক মৃত্যু এতটা কম হলো। ১৮ এপ্রিল শেষ বার দৈনিক মৃত্যু ছিল ১ হাজার ৫০১ জন। তার পর থেকে যত দিন গিয়েছে, তত বেড়েছে দৈনিক মৃত্যু।

মহারাষ্ট্র, বিহারের মতো রাজ্যগুলো কোভিডে পুরনো মৃত্যু পর্যালোচনা করায় গত সপ্তাহে মাত্রা ছাড়া হয়েছিল দৈনিক মৃত্যু। গত ২৪ ঘণ্টায় অনেকটাই তা কমেছে।

করোনাভাইরাস গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে মৃত্যু হয়েছে ৬৩৬ জনের। যা গত কয়েক দিনের তুলনায় অনেকটাই কম। তামিলনাড়ুতে তা ২১০ এবং কর্নাটকে ১৩৮। কেরলে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু নেমেছে ১০০-র নিচে। অন্ধ্রপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ এবং পশ্চিমবঙ্গে দৈনিক মৃত্যু ৫০-এর বেশি হলেও, বাকি সব রাজ্যে তা ৫০-এর নিচে।

নতুন আক্রান্তের থেকে সুস্থ বেশি হওয়ায় দেশে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা গত এক মাস ধরেই কমছে। কমতে কমতে তা নেমে এসেছে ৮ লাখের নিচে। এখন দেশে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৭ লাখ ৯৮ হাজার ৬৫৬ জন। পাশাপাশি দেশের দৈনিক সংক্রমণের হারও নেমেছে ৪ শতাংশের নিচে।

বিষয় : ভারত করোনা

মন্তব্য করুন