কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) শাখা ছাত্রদলের ৩১ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল সম্প্রতি এ কমিটি ঘোষণা করেন। তবে নতুন কমিটিতে অছাত্র ও ব্যবসায়ীদের স্থান দেওয়া হয়েছে অভিযোগ করে নেতাকর্মীদের একাংশ এই কমিটি প্রত্যাখ্যান করেছে।

গত রোববার রাতে গঠিত কমিটিতে লোকপ্রশাসন বিভাগের ২০০৭-০৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মোহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আল মামুনকে আহ্বায়ক এবং ইংরেজি বিভাগের ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমান শুভকে সদস্য সচিব করা হয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের একাধিক নেতাকর্মীর অভিযোগ, কমিটিতে আওয়ামী পরিবারের সন্তান, ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িত ব্যক্তি, দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতিতে নিষ্ক্রিয়, অছাত্র ও ব্যবসায়ীদের গুরুত্বপূর্ণ পদে মূল্যায়ন করা হয়েছে। এ নিয়ে একাধিক নেতা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এমনকি ঘোষিত কমিটিতে স্থান পাওয়া সদস্য সচিবসহ একাধিক নেতা কমিটি প্রত্যাখ্যান করেছেন।

ছাত্রদলের কমিটিতে স্থান পাওয়া একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, প্রথম সারির কোনো নেতাই বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত ছাত্র নন। কয়েকজন সান্ধ্যকালীন কোর্সে ভর্তি থাকলেও বাকিরা বিভিন্ন ব্যবসা বা চাকরি করছেন। এ ছাড়া মাঠের রাজনীতিতে দীর্ঘদিন ধরে নিষ্ক্রিয় থাকার অভিযোগও রয়েছে কয়েকজনের বিরুদ্ধে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নবনির্বাচিত আহ্বায়ক আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ২০০৫-০৬ সেশন থেকেই কমিটিতে আবেদন করার অনুমতি কেন্দ্র থেকে দেওয়া হয়েছে। নবনির্বাচিত সবাই মিলে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদলকে এগিয়ে নেব।

কমিটির সদস্য সচিব মোস্তাফিজুর রহমান শুভ জানান, আমরা বেশিরভাগ নেতাকর্মীর সঙ্গে কথা বলেছি। প্রায় তিন-চতুর্থাংশ নেতা এ কমিটির প্রতি পূর্ণভাবে অনাস্থা জানিয়েছেন। কেন্দ্রকে আমরা এ মেসেজ দিয়েছি। এ কমিটিতে আওয়ামী লীগের পরিবারের সন্তানদেরও স্থান দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ছাত্রলীগের রাজনীতি করেছে, এমন ছেলেদেরও কমিটিতে পদ দেওয়া হয়েছে।

সার্বিক বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল বলেন, আহ্বায়ক কমিটি স্বল্প সময়ের জন্য হয়। এটা বেশিদিন থাকবে না। আমরা সাংগঠনিকভাবে খোঁজখবর নিয়েই কমিটি দিয়েছি। 

অনিয়মিত ছাত্র, ব্যবসায়ী ও নিষ্ক্রিয়দের প্রাধান্য দেওয়ার অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইভিনিং কোর্সের ছাত্রও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। সংগঠনের দরজা কারও জন্য বন্ধ নয়। শহীদ জিয়ার আদর্শ ধারণ করে সবাই এ সংগঠনে আসতে পারবে।

বিষয় : ছাত্রদলের কমিটি কুবি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়

মন্তব্য করুন