দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনের পর প্রথম সংযুক্ত আরব আমিরাত সফরে যাচ্ছেন ইসরায়েলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ। আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের আমন্ত্রণে আগামী ২৯ ও ৩০ জুন দুই দিনব্যাপী এ সফর হওয়ার কথা।

সোমবার ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংবাদমাধ্যমকে এ তথ্য জানায়। সফরের সময় ইয়ার লাপিদ আবুধাবিতে ইসরায়েলি দূতাবাস উদ্বোধন করবেন বলেও জানা গেছে। খবর এনডিটিভির

এর আগে গতবছরের সেপ্টেম্বরে ইসরায়েলের সঙ্গে আরব আমিরাতসহ মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশ সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে প্রক্রিয়া শুরু করে। 

প্রথমে আরব আমিরাত, এরপর বাহরাইন এ প্রক্রিয়ায় অংশ নেয়। এরপর একমাত্র ইহুদি রাষ্ট্রটির সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করে আফ্রিকান দেশ মরক্কো ও সুদান।

সোমবার এক বিবৃতিতে জানানো হয়, ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ প্রথমবারের মতো আরব আমিরাতে সফরে যাচ্ছেন। এটি হবে তার ‘ঐতিহাসিক’ সফর।

নেতানিয়াহুর দক্ষিণপন্থি সরকারের পতনের পর এখন ইসরায়েলে কোয়ালিশন সরকার ক্ষমতায়। বলতে গেলে গত ১৩ জুন ক্ষমতায় আসা এ সরকারের একজন স্থপতি ইয়ার লাপিদ।

ইসরায়েলের অন্যান্য মন্ত্রী অবশ্য এর আগেও আমিরাত সফর করেছেন। কিন্তু পররাষ্ট্রমন্ত্রী লাপিদ এবারই প্রথম অফিসিয়াল সফরে যাচ্ছেন। মন্ত্রীদের মধ্যে আবার লাপিদ অনেক বয়োজ্যেষ্ঠ।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ইসরায়েলি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এ সফর অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এর ফল যে শুধু দুই দেশের জনগণই পাবে, তা নয়। বরং এর মাধ্যমে পুরো মধ্যপ্রাচ্যই উপকৃত হবে।

বিষয় : আরব আমিরাত ইসরায়েল রাজনীতি

মন্তব্য করুন