এবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে নিয়ে সরব হলেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। সম্প্রতি পাকিস্তানে ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় এর কারণ হিসেবে ইমরান খান মেয়েদের স্বল্প পোশাককে দায়ী করেন। বিষয়টি নজরে আসতেই ফেসবুক ও টুইটারে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানান তসলিমা নাসরিন। এমনকি ইমরান খানকে 'একদার প্লেবয়' বলে মন্তব্য করেন এ লেখিকা।

ফেসবুক পোস্টে তিনি লিখেছেন, ''ইমরান খান বলেছেন 'অল্প কাপড় যে মেয়েরা পরে, তাদের দেখে পুরুষলোক, যদি তারা রোবট না হয়,  উত্তেজিত হবেই।' কিন্তু ইমরান খান তো বেশি কাপড় যে মেয়ে পরে, নিকাবসহ বোরখা যে মেয়ে পরে, সেই বুশরা বিবিকে দেখে এমন উত্তেজিত হয়েছিলেন যে বিয়ে পর্যন্ত করে ফেলেছেন।''


ওই পোস্টে তসলিমা আরও লেখেন, 'মেয়েরা ছোট পোশাক পরলে যারা উত্তেজিত হয়, ইমরান খান বলছেন, তারা পুরুষ, তারা রোবট নয়। তাহলে তো মেয়েরা বড় পোশাক পরলে যারা উত্তেজিত হয়, তারা রোবট, তারা পুরুষ নয়। ইমরান খান কি তবে রোবট? এই প্রশ্নটি মজার।  কিন্তু পুরো ব্যপারটা মজার নয়। ইমরান খান, একদার প্লেবয়,  ধর্ষণ আর যৌন হেনস্থার জন্য ধর্ষক বা হেনস্থাকারী পুরুষদের দোষ না দিয়ে আবারও  মেয়েদের পোশাককে দোষ দিচ্ছেন। এই ভুল কি তিনি জেনেবুঝে করছেন? নাকি তিনি মানুষটাই শুরু থেকে নারীবিদ্বেষী!''

সম্প্রতি অ্যাক্সিওস নামের একটি সংবাদ সংস্থার সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে ধর্ষণের পেছনে মেয়েদের খোলামেলা পোশাককে দায়ী করেছেন ইমরান খান। তার এই মন্তব্যের কঠোর সমালোচনা করেন দেশটির সচেতন নাগরিকেরা। তারা প্রধানমন্ত্রীর এ ধরনের মন্তব্য ধর্ষকদের উৎসাহিত করবে বলে আশঙ্কা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

সাক্ষাৎকারে ইমরান খানকে পাকিস্তানে ধর্ষণ ও যৌনসন্ত্রাস ছড়িয়ে পড়া সম্পর্কে প্রশ্ন করা হয়। জবাবে তিনি বলেন, নারীদের পোশাক স্বল্পতার কারণে পুরুষরা উৎসাহিত হয়। কারণ মানুষ তো আসলে রোবট নয় যে, তার ভাল-মন্দ অনুভূতি থাকবে না। পর্দা করলে নারীরা নিরাপদ থাকবে।

বিষয় : তসলিমা নাসরিন ইমরান খান

মন্তব্য করুন