ভূমধ্যসাগর থেকে ২৬৭ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করেছে তিউনিসিয়ার কোস্টগার্ড। এদের মধ্যে ২৬৪ জন বাংলাদেশি রয়েছেন। আর ৩ জন মিশরের নাগরিক। তারা সবাই ভূমধ্যসাগরে লিবিয়া থেকে ইউরোপে পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা্ করছিলো। অভিবাসন সংস্থা আইওএম এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছে। 

অভিবাসন সংস্থা আইওএম জানায়, নৌকা ভেঙে যাওয়ায় তারা উপকূলে আটকা পড়েন। পরে তাদের উদ্ধার করে তিউনিসিয়া কোস্টগার্ড। এমনকি অভিবাসনপ্রত্যাশীদের লিবিয়া সীমান্তের বেন গর্দান বন্দরে পৌঁছাতে সাহায্য করে তিউনিসিয়িা প্রশাসন। খবর এএফপির। 

তবে তিউনিসিয়ার কোস্টগার্ড জানায়, অভিবাসনপ্রত্যাশীদের আইওএম এবং রেড ক্রিসেন্টের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। 

আইওএম জানান, তিউনিসিয়ান আইসল্যান্ড জেরবার একটি হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে তাদের। 

আইওএমের তথ্য অনুষায়ী, লিবিয়া থেকে ইউরোপে যাওয়ার পথে এ জানুয়ারিতে এক হাজারেরও বেশি মানুষ তিউনিসিয়ায় আটকা পড়েন। এ সংখ্যা যতই দিন যাচ্ছে ততই বাড়ছে। 

জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত ১১ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী লিবিয়া হয়ে ইউরোপে প্রবেশের চেষ্টা করেছেন। গত বছরের থেকে এই সংখ্যা প্রায় ৭০ শতাংশ বেশি।