দীর্ঘদিন লকডাউনে থাকার পর এবার করোনা বিধিনিষেধহীন মুক্তভাবে ঈদুল আজহা উদযাপন করছেন ব্রিটেনের মুসলমান সম্প্রদায়। কোলাকুলি করেছেন একে অপরের সঙ্গে। তবে কোন বিধিনিষেধ না থাকলেও অনেকেও ছিলেন মাস্ক পরিহিত। সামাজিক দূরত্বও মেনে চলেছেন অনেকে। 

করোনাভাইরাসের ভয়ংকর ডেল্টা সংক্রমণের মধ্যেই ১৯ জুলাই বিধিনিষেধ তুলে নেয় ব্রিটেন। এতে ব্রিটেনে বিভিন্ন  মসজিদ ও খোলা মাটে অনুষ্ঠিত ঈদ জামাতগুলোতে নেমেছিলো মুসল্লিদের ঢল। লন্ডনের বিভিন্ন পার্কের খোলা মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে ঈদ জামাত।


বাংলাদেশী অধ্যুষিত পূর্ব লন্ডন মসজিদে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে মোট ৪টি জামাত অনুষ্টিত হয়েছে। প্রতিটি জামাতে প্রায় শত শত মুসল্লি অংশ নিয়েছেন বলে জানান ইস্ট লন্ডন মসজিদ কর্তৃপক্ষ।

ব্রিকলেন মসজিদেও অনুষ্ঠিত হয় মোট ৪টি জামাত। এই দুটো মসজিদেই মূলত জামাত আদায় করেন কমিউনিটির নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিবর্গ।

পূর্ব লন্ডন ছাড়াও গ্রেটার লন্ডনের রেডব্রিজ, ডেগেনহাম ও নিউহ্যামসহ বিভিন্ন এলাকার মসজিদ ও খোলা মাঠে অনুষ্ঠিত হয় ঈদের জামাত। প্রতিটি জামাতে বিশ্বমুসলিমের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করেঅনুষ্ঠিত হয় বিশেষ মোনাজাত।

পূর্ব লন্ডনের বাঙালি অধ্যুষিত এলাকায়ঈদের আমেজ ছিল অনেকটা বাংলাদেশের মত। রং বেরংয়ের পোশাক পরিধান করে ছোট বাচ্চাদের আনন্দ, মসজিদে মুসল্লিদের ভিড়। এছাড়াও একে অন্যের বাড়িতে যাওয়ার আলাদা আমেজ এনে দেয় টাওয়ার হ্যামলেটস এলাকায়। 


এদিকে, যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাইদা মুনা তাসনিম এক বার্তায় যুক্তরাজ্য ও আয়ারল্যান্ড প্রবাসী বাংলাদেশিদের ঈদ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। শুভেচ্ছা বার্তায় তিনি বলেন, ‘করোনা ভাইরাসের এই ক্রান্তিলগ্নে অনুষ্ঠিত এবারের ঈদ সবার জন্য বয়ে আনুক সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি’।

বিষয় : করোনা বিধিনিষেধহীন মুক্ত ঈদ ব্রিটেন

মন্তব্য করুন