যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আফগানিস্তানের জন্য 'অপ্রত্যাশিত জরুরি’ শরণার্থী চাহিদা খরচ মেটানোর জন্য ১০ কোটি ডলারের জরুরি সাহায্য তহবিল ঘোষণা করেছেন। স্থানীয় সময় শুক্রবার হোয়াইট হাউস থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

এছাড়াও আফগানিস্তানে পরিষেবা এবং বিভিন্ন সামগ্রী খাতে ব্যবহারের জন্য আরও ২০ কোটি ডলারের জরুরি সহায়তা অনুমোদন করা হয়েছে বলে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। খবর রয়টার্সের

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে কাজ করে তালেবান হামলার হুমকিতে থাকা যেসব শরণার্থী রয়েছেন, তাদের যুক্তরাষ্ট্রে নিতে ভিসা প্রসেসিংসহ নানা কাজে এ অর্থ ব্যয় হবে।

এ মাসের শেষ নাগাদ আফগানিস্তান থেকে প্রথম ব্যাচের এই আশ্রিতরা ভার্জিনিয়ার ফোর্ট লিতে পৌঁছাবে, সেখানে তারা ভিসা আবেদনের চূড়ান্ত প্রক্রিয়াগুলো শেষ করার জন্য অপেক্ষা করবেন।

পেন্টাগন থেকে জানানো হয়েছে, সোমবার রিসমন্ডের ৩০ মাইল (৪৮ কিলোমিটার) দক্ষিণে প্রায় আড়াই হাজার আফগানকে এই সুবিধার আওতায় আনা হবে।

বাইডেন প্রশাসন যুক্তরাষ্ট্রের ভেতরে এবং বাইরের কোন কোন জায়গায় জরুরি ভিসায় আবেদনকারী আফগানদের স্থানান্তর করা যায় তার খোঁজ নিচ্ছে। পরে তাদের অভিবাসন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে যাওয়া হবে।

২০০১ সালে আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্র আগ্রাসনের পর যুক্তরাষ্ট্র সরকারের পক্ষ থেকে অনুবাদক হিসাবে বা অন্যান্য কাজের ক্ষেত্রে আফগানদের জন্য বিশেষ অভিবাসী ভিসা দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার, মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদ এমন একটি আইন পাস করেছে যার মাধ্যমে জরুরি ভিসা আবেদনকারীরা বিশেষ প্রাধান্য পাবেন। অভিবাসন বিভাগ জানিয়েছে, ১৮ হাজারের বেশি আফগান নাগরিকের আশ্রয় আবেদন অভিবাসন প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছে।