করোনা ভাইরাসের আবহেই আয়োজিত হচ্ছে এবারের অলিম্পিক আসর। বায়ো-বাবলে থেকেই সব ইভেন্টে অংশ নিচ্ছেন অ্যাথলেটরা। এত সুরক্ষার মধ্যে থেকেও করোনাকে ঠেকাতে পারলো না অলিম্পিক। মঙ্গলবার অলিম্পিক আয়োজক কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, আরও ৪ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ২ জন অ্যাথলেট রয়েছেন।

এই নিয়ে চলতি অলিম্পিকে মোট ১৫৫ জনের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেল। যাদের মধ্যে গেমস ভিলেজেই আক্রান্ত ২০ জন। নতুন করে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে দু’জন অ্যাথলেট হওয়ায় চিন্তা আরও বাড়িয়েছে সংগঠকদের।

সোমবারই একজন ডাচ টেনিস প্লেয়ার করোনা আক্রান্ত হওয়ার জন্য টুর্নামেন্ট থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন। ডাবলসে তার ম্যাচ ছিল। কিন্তু করোনা আক্রান্ত হওয়ায় তাকে সরে দাঁড়াতে হয়।

২০২০ সালে হওয়ার কথা ছিল টোকিও অলিম্পিকের। কিন্তু, অতিমারির জন্য তা পুরো এক বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়। এ বছরও, অত্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ ও সতর্কতা অবলম্বন করে হচ্ছে এই গেমস। যদিও টোকিও অলিম্পিক গেমসের আয়োজক কমিটির প্রধান সিকো হাসিমোটো বলেছিলেন, 'যে কোনও কোভিড হানাকে রুখতে তৎপর আমরা। যদি কোনও ঘটনা ঘটেও থাকে, তাহলে সেক্ষেত্রে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নেব।' 

কিন্তু এরপরেও টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার পরেও করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া ক্রমে বেড়েই চলেছে। এতে চাপও বাড়ছে আয়োজকদের।