অস্ট্রেলিয়ার অন্যান্য শহরে শিথিল করা হলেও আরও একমাস লকডাউনে থাকছে সিডনি। বুধবার সিডনি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রদেশটিতে এখনও করোনা সংক্রমণ বাড়ছে।

অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে বড় শহরে জুনের শেষ থেকে লকডাউন চলছে। তবে করোনা সংক্রমণ উর্ধ্বমুখী হওয়ায় তা এখন ২৮ আগস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। খবর বিবিসির

চলতি বছরে সিডনিতে এখন পর্যন্ত ২ হাজার ৫০০ জনের বেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বুধবার নিউ সাউথ ওয়েলসে একদিনে করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ১৭৭ জন। ২০২০ সালের মার্চ থেকে করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে দেশটিতে এটিই এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। 

নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্য প্রধান গ্লেডিস বেরিজিকলিয়ান জানান, জনসাধারণের জন্য যেসব নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে তা আমি সমর্থন করি। কেননা এগুলো নেওয়া হয়েছে সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে। 

গ্লেডিস জানান, লকডাউন বাস্তবায়নে তৎপর থাকবে পুলিশ। তবে প্রধান দায়িত্ব পালন করতে হবে মানুষকেই। নিজের নিরাপত্তায় সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। 

করোনার প্রথম ধাক্কায় আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ করে এবং দ্রুত কিছু পদক্ষেপ নিয়ে বেশ সফল হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু অনেক সংখ্যক মানুষ টিকার আওতায় না থাকায় বর্তমানে দেশটি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট সামলাতে কষ্ট হচ্ছে। তাই অনেক শহরে লকডাউন দেওয়া হচ্ছে।