ইসরায়েলে ৬০ বছরের বেশি বয়সী নাগরিকদের আগামী রোববার থেকে করোনার টিকার তৃতীয় ডোজ দেওয়া শুরু হচ্ছে। এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে  শুক্রবার দেশটির প্রেসিডেন্ট আইজ্যাক হারজগ (৬০) ফাইজারের বুস্টার ডোজ তথা টিকার তৃতীয় ডোজ নিয়েছেন। খবর বিবিসি ও এএফপির।

তেল আবিবের কাছে রামাট গ্যানের সেবা হাসপাতালে টিকা নেওয়ার পর প্রেসিডেন্ট হারজগ বলেন, 'আমরা বুস্টার টিকাকরণ শুরু করেছি, যাতে যত দ্রুত সম্ভব ইসরায়েলের মানুষ স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় ফিরতে পারে।'

এর আগে বৃহস্পতিবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট বলেন, আপাতত যাদের বয়স ৬০ বছরের বেশি, তারাই শুধু তৃতীয় ডোজ পাবেন। ইসরায়েলেই প্রথম করোনা টিকার তৃতীয় ডোজ দেওয়া হচ্ছে।

টিকাদানের দিক দিয়ে বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে বেশ এগিয়ে রয়েছে ইসরায়েল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত টিকাটির দুই ডোজ পেয়েছেন ৫৫ শতাংশ নাগরিক। ব্যাপক হারে টিকাদানের কারণে সেখানে সংক্রমণের হারও কম।

বিশ্বব্যাপী করোনার ডেলটা ধরন ছড়িয়ে পড়ার পর ফাইজারের টিকার তৃতীয় ডোজ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ইসরায়েল। প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট বলেন, টিকা দেওয়ার ফলে করোনার বিরুদ্ধে শরীরে যে প্রতিরোধ ব্যবস্থা গড়ে উঠেছে, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তা দুর্বল হয়ে পড়েছে। এই প্রতিরোধ ব্যবস্থা আবারও শক্তিশালী করতে অতিরিক্ত এই ডোজ দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া তৃতীয় ডোজ নেওয়ার ফলে সংক্রমণের আশঙ্কা কমে আসবে এবং করোনায় আক্রান্ত হলেও শারীরিক জটিলতা কম হবে।