কিশোরগঞ্জের হাওরে ঘুরতে এসে নিখোঁজ হওয়ার দুইদিন পর সৈয়দ জাহিরুর রহমান ওরফে সাগর (৪৫) নামে এক পর্যটকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) নিকলী উপজেলার ছাতিরচরের হাওরে জেলেদের জালে তার লাশ আটকা পড়ে।

সৈয়দ জাহিরুর রহমান ওরফে সাগর রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার হাবিবার রহমানের ছেলে। তার গ্রামের বাড়ি যশোরের কাজীপাড়া কাঠালতলায় এবং তিনি পেশায় একজন ব্যবসায়ী ছিলেন।

পুলিশ জানায়, গত শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) ঢাকা থেকে দুইটি ট্যুরিস্ট বাসযোগে ৫১ জন পর্যটক কিশোরগঞ্জের হাওরে ঘুরতে আসেন। ঘুরা শেষে ঢাকায় ফেরার জন্য রাত ৮টার দিকে তারা নিকলীর পুড্ডা বাজারে ট্রলার থেকে নামেন। বাসে উঠার পর সাগরের অনুপস্থিতির বিষয়টি সকলের নজরে আসে। এরপর থেকে নিকলী থানা পুলিশের সহায়তায় হাওরের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক উদ্ধার তৎপরতা চালানো হলেও সাগরের সন্ধান মেলেনি। 

রোববার তৃতীয় দিনের মতো সাগরের সন্ধানে উদ্ধার তৎপরতা পরিচালনা করা হয়। এক পর্যায়ে দুপুর ১২টার দিকে নিকলী উপজেলার ছাতিরচরের হাওরে জেলেদের জালে তার লাশ আটকা পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে।

নিকলী থানার ওসি মো. শামছুল আলম সিদ্দিকী জানান, নিখোঁজ পর্যটক সাগরের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।