তালেবান আফগানিস্তান দখলের পর রাজধানী কাবুলের অবস্থানরত বিভিন্ন দেশের দূতাবাস বন্ধ হয়ে গেছে। এ সুযোগে দেশটিতে ভিসা কালোবাজারির জমমজমাট ব্যবসা শুরু হয়েছে।

আফগানিস্তানের গণমাধ্যম টোলো নিউজের বরাত দিয়ে সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, তালেবান আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের পর থেকে অনেক নাগরিকই দেশ থেকে পালিয়ে যেতে চাইছেন। এ সুযোগে কাজে লাগিয়ে কালোবাজারে বহুগুণ বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে বিভিন্ন দেশের ভিসা।

কয়েকটি ট্রাভেল এজেন্সি জানিয়েছে, বর্তমানে শুধুমাত্র বৈধভাবে পাকিস্তানের ভিসা পাওয়া যাচ্ছে। এ ছাড়া বেশ কিছু দেশের ভিসা কালোবাজারে বিক্রি হচ্ছে অনেক বেশি দামে।

বেশ কিছু ট্রাভেল এজেন্সি জানিয়েছে, মানুষ বর্তমানে কালোবাজারে পাকিস্তানি ভিসা কিনছে ৩৫০ ডলারে, তাজিকিস্তানের ভিসা ৪০০ ডলারে, উজবেকিস্তানের ভিসা ১৩৫০ এবং তুরস্কের ভিসা কিনছে ৫০০০ ডলারে।

ট্রাভেল এজেন্সির এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তালেবান দেশটিতে নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার আগে পাকিস্তানের ভিসা ছিল ১৫ ডলার, ভারতের ২০ ডলার, তাজিকিস্তান ও উজবেকিস্তানের ৬০ ডলার এবং তুরস্কের ১২০ ডলার।

এদিকে, অনেক আফগানই দেশ ছেড়ে পালাতে টাকা জোগাড় করতে কাবুলের রাস্তায় কার্পেট, ফ্রিজ, টেলিভিশনসহ নিজেদের ঘরের জিনিসিপত্র বিক্রি করছে।