দুধ দাঁত পড়ে নতুন দাঁত উঠবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু তিনটি দাঁত পড়ে যাওয়ার পরও দাঁত না ওঠায় রীতিমতো চিন্তিত পাঁচ বছরের এক শিশু। তাই বাধ্য হয়েছে সমস্যা সমাধানে সে চিঠি লিখেছে দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে। তার আশা, নিশ্চয়ই প্রধানমন্ত্রী তার এই সমস্যার সমাধান করবেন।

ঘটনাটি ভারতের আসামের। ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারের প্রতিবেদন অনুযায়ী,পাঁচ বছর বয়সী রিসা রাওজা আহমেদ তার রুল টানা খাতায় দাঁত না ওঠায় অভিযোগ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী  মোদিকে চিঠি লিখেছে। গোটা গোটা হরফে সে লিখেছে, তার নতুন দাঁত উঠতে দেরি হচ্ছে, মোদিজি যেন জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেন।

রিসা চিঠিতে মোদিকে সম্বোধন করেছে ‘ডিয়ার মোদিজি’ বলে। সে লিখেছে, তার তিনটি দাঁত পড়ে গেলেও সেই জায়গায় নতুন দাঁত গজায়নি। এ কারণে খাবার চিবাতে তার বেশ সমস্যা হচ্ছে। পছন্দের খাবার খেতেও পারছে না সে।  একই সমস্যায় ভূগছে রিসার দাদা আরিয়ানেরও। তার  পাঁচটা নতুন দাঁত ওঠা এখনও বাকি। ছয় বছরের আরিয়ান অবশ্য প্রধানমন্ত্রীকে নয় আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মাকে চিঠি লিখে জানিয়েছে তার সমস্যার কথা। সে মুখ্যমন্ত্রীকে সম্বোধন করেছে ‘হিমন্ত মামা’বলে। চিঠির নিচে নিজেদের নাম এমনকি তারিখও দিয়েছে দুই ভাই।

ইংরেজিতে লেখা চিঠি দুটি নেটমাধ্যমে শেয়ার করেছেন রিসা এবং আরিয়ানের মামা। তিনি লিখেছেন, ‘বিশ্বাস করুন, আমি বাড়িতে ছিলাম না। সম্ভবত ওরা নিজেরাই নিজেদের মতো করে এ সব ভেবেছে আর লিখেছে।’
 
নেটমাধ্যমে ছড়িয়ে যাওয়া  চিঠি দুটি  ইতোমধ্যে নেটিজেনদের নজর কেড়েছে।