ভারত যদি আফগানিস্তানে কোনও ধরনের সামরিক শক্তি প্রদর্শনের চেষ্টা করে, তাহলে তাদের উচিত জবাব দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে তালেবান।

তালেবানের মুখপাত্র মুহাম্মদ সুহেল শাহিন বলেন, ভারত যদি আফগানিস্তানে কোনো ধরনের সামরিক শক্তি প্রদর্শনের চেষ্টা করে, তবে ফল হবে মারাত্মক ভয়ঙ্কর। আফগানিস্তানে অন্য দেশের সেনা থাকলে কী হতে পারে, তা আগেই দেখা হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। খবর জি নিউজের।

তালেবান আফগানিস্তানে ক্ষমতা দখলের পর বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশের সঙ্গে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। প্রায় দেশই তাতে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া না দেখালেও ভারতসহ কয়েকটি দেশ তাদের চরম বিরোধিতা করছে। আফগানিস্তানে ক্ষমতা গ্রহণ করা পর প্রথমবার ভারতের সাথে যোগাযোগ করেছিল তালেবান। দু'দেশের মধ্যে বিমান সংযোগ পুনরায় শুরুর প্রস্তাব দিয়েছিল তারা। তবে ভারতের পক্ষ থেকে ইতিবাচক সাড়া না পাওয়ায় এবং ভারতের বৈরী মনোভাব আঁচ করতে পেরে এবার চরম হুঁশিয়ারি দিল তালেবান। 

আফগানিস্তানে তালেবান শাসন কায়েম হওয়ায় সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ বৃদ্ধি পাবে বলে আন্তর্জাতিক মহল যে আশঙ্কা করছে, সে আশঙ্কার কোনও ভিত্তি নেই বলে দাবি করেন মুহাম্মদ সুহেল শাহিন। কোনও সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের সাথে তাদের যোগ নেই দাবি করে তালেবান মুখপাত্র জানান, আফগানিস্তানে বিদেশি রাষ্ট্রদূতরা সুরক্ষিত রয়েছেন।

অবশ্য বিগত বছরগুলোতে আফগানদের পাশে দাঁড়িয়ে ভারত যে সাহায্য করেছে, তার প্রশংসাও করেন মুহাম্মদ সুহেল শাহিন। একই সাথে ভারতের প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানান।