ভারতে কৃষক আন্দোলনের মঞ্চের কাছ থেকে এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার সকালে নয়াদিল্লির সিংঘু সীমানায় উদ্ধার হওয়া ওই মৃতদেহ ঘিরে নতুন করে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে কৃষকদের মধ্যে।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, পুলিশ এ ঘটনায় সন্দেহভাজন এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করেছে। ঘটনাটির তদন্তও শুরু হয়েছে। তবে কে বা কারা এই হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছে, সে ব্যাপারে এখনও নিশ্চিতভাবে কিছু জানা যায়নি।

বেশ কয়েকটি ভাইরাল ভিডিও শুক্রবার সকালে সামনে এসেছে। তার একটিতে দেখা যাচ্ছে, পাঞ্জাবি নিহাং সম্প্রদায়ের কিছু মানুষ এক যুবকের উপর অত্যাচার করছে। মাটিতে ফেলে মারধর করা হচ্ছে ওই যুবককে।

তবে এই ভিডিওর যুবকই মৃত ব্যক্তি কি না, সে ব্যাপারে তদন্তকারীরা নিশ্চিত নন। তাই ভিডিও নিয়ে এখনই কোনও মন্তব্য করতে চায়নি স্থানীয় কুন্দলি থানার পুলিশ।

শুক্রবার একটি বিবৃতি দিয়ে কুন্দরী থানার পুলিশ সুপার হংসরাজ জানিয়েছেন, দেহটি ৩৫ বছরের এক যুবকের। শুক্রবার ভোর পাঁচটার দিকে ওই মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত ব্যক্তির কাটা হাতটি তার দেহের পাশেই ঝুলিয়ে দিয়েছিল দুষ্কৃতিকারিরা। পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। ঘটনা সংক্রান্ত ভাইরাল ভিডিওটি এখনও তদন্তাধীন।