সন্তান গর্ভে নিয়েও কোনো কিছু থামিয়ে রাখেননি কলকাতার নায়িকা নুসরাত। সে অবস্থাতেই করেছেন বিজ্ঞাপনের শুটিং। অনেকেই ভেবেছিলেন সন্তান হওয়ার পর হয়তো কিছুদিন বিশ্রামে যাবেন তিনি। কিন্তু না, নুসরাত তার মতো করেই সব কিছু সচল রেখেছেন।। 

গত শনিবারই যশ দাশগুপ্তর সঙ্গে কাশ্মীরে পাড়ি  দেন । মা হওয়ার দু'মাসের মাথাতেই অভিনেত্রীর এভাবে ঘুরতে চলে যাওয়া দেখে অবাক হয়েছেন অনেকেই। আসন্ন ছবি ‘চিনে বাদাম’র একটি গানের শ্যুটে এখন কাশ্মীরে আছেন যশ দাশগুপ্ত আর এনা সাহা। আর যশের ছায়াসঙ্গী হিসেবেই নুসরাতের কাশ্মীর ভ্রমণ বলেই জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম। 

ভূস্বর্গে পা রাখার পর থেকেই নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক ছবি শেয়ার করতে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রী-সাংসদকে। কাশ্মীর যাওয়ার পথে কলকাতা বিমান বন্দরের লাউঞ্জে বসে একটি ভিডিও তুলেছিলেন নুসরাত। তারপর যশের সাথে একই লোকেশনে ছবি দিয়েছেন। আর এবার নুসরাত দেখা দিলেন বরফের সাদা চাদড়ে ঢাকা পড়ে যাওয়া ভ্যালিতে।

পাফার জ্যাকেট, গ্লাভস আর ছাতা মাথায় ঘুরতে বেড়িয়ে পড়েছেন নায়িকা। নুসরাতের এই ছবি মন কাড়ল অনেকেরই। তবে, সমালোচনাও হল। অনেকেরই মতে এত ছোট বাচ্চা নিয়ে এত ঠান্ডায় যাওয়া ঠিক হয়নি তার। এতে বড় কোনও অসুখও হতে পারে ঈশানের বলে চিন্তাপ্রকাশ করেছেন অনেকেই। 

ঈশানের বয়স যখন মাত্র ১৩ দিন, তখনই কাজে ফিরেছিলেন নুসরাত। তারপর তাকে যশের সঙ্গে একাধিকবার দেখা গিয়েছে শহরে। কখনও কলকাতা পৌরসভায় গিয়ে করোনার টিকা নিয়েছেন। কখনও আবার যশের ছবির মহরতে চলে গিয়েছেন। পুজোয় বিচারকের আসনেও দেখা গিয়েছিল ঈশানের মাম্মাকে। শুরু করেছেন শুটিং। শিগগগিরই তাকে দেখা যাবে ‘জয়কালী কলকত্তেওয়ালী’ছবিতে। মা হওয়ার পর এটিই প্রথম সিনেমা হতে যাচ্ছে নুসরাতের।