প্রিন্স হ্যারি ও তার স্ত্রী মেগান মার্কেল যুক্তরাষ্ট্রের একটি সামরিক ঘাঁটিতে অবস্থিত আফগান শরণার্থী শিবির পরিদর্শন করেছেন। বৃহস্পতিবার ওই শিবিরে আফগান শরণার্থীদের সঙ্গে সময় কাটান তারা। আগস্টে তালেবান আফগানিস্তান দখলে নেওয়ার পর এক বিশৃঙ্খল অবস্থার সৃষ্টি হয়। সে পরিস্থিতিতে এক উদ্ধার কার্যক্রমের সময় এসব আফগান যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান। খবর সিএনএনের।

হ্যারি ও মেগানের একজন মুখপাত্র জানান, যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সির সামরিক ঘাঁটি পরিদর্শনের সময় সেখানে আশ্রয় নেওয়া আফগান নারীদের সঙ্গে কথা বলেন এ দম্পতি। টাস্কফোর্স লিবার্টি নামের ওই শরণার্থী শিবিরে ১০ হাজারের বেশি আফগান শরণার্থী বাস করছেন।

হ্যারি ও মেগান শরণার্থী শিবিরে শিশুদের সঙ্গে কথা বলেন বলে জানান তিনি। শিশুদের অনেকেই তখন 'আপনাদের সঙ্গে দেখা করে ভালো লাগল' বলে জানায়। হ্যারি ও মেগান শরণার্থী শিবিরের শিশু ও প্রাপ্তবয়স্ক সবার সঙ্গে কথা বলার শেষে 'তাশাকুর' অর্থাৎ 'ধন্যবাদ' জানান।

রাজ দম্পতির মুখপাত্র আরও বলেন, শিক্ষকদের নেতৃত্বে 'মাথা, কাঁধ, হাঁটু ও পায়ের আঙুল' নিয়ে একটি গান গাচ্ছিল শিশুরা। হ্যারি-মেগানও তখন বাচ্চাদের সঙ্গে গান করেন। তাদের আনন্দ হচ্ছে বলে এ সময় জানান তারা। কারণ, এটা তাদের ছেলে আর্চির প্রিয়। শিক্ষকদের তাদের এমন প্রচেষ্টার জন্য ধন্যবাদ জানান হ্যারি ও মেগান। একই সঙ্গে নিজেদের মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে যত্নশীল থাকার কথাও স্মরণ করিয়ে দেন।

যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহিনীর ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, আফগানিস্তানে সেনা প্রত্যাহার শুরু হওয়ার মধ্যে গত আগস্টে টাস্কফোর্স লিবার্টি নামের ওই শরণার্থী শিবির খোলা হয়। বর্তমানে সেখানে থাকা ১০ হাজারের বেশি আফগান শরণার্থীর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন বাহিনীর সদস্য নিয়োজিত রয়েছেন।