সংযুক্ত আরব আমিরাতের যুবরাজ শেখ মুহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ানের সঙ্গে ইরান ইস্যুতে বৈঠক করেছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট।

তুরস্কের সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি এ তথ্য জানায়।

খবরে বলা হয়, সোমবার আরব আমিরাতের যুবরাজের সঙ্গে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। 

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেটের কার্যালয় থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে এ বৈঠককে ‘ঐতিহাসিক’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, বৈঠকে ইসরায়েল ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক এবং ইরানের পরমাণু ইস্যু নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

তবে এর বেশি কিছু বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়নি।

যুবরাজ এমবিজেডের আমন্ত্রণে সরকারি সফরে রোববার সংযুক্ত আরব আমিরাতে যান ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট। উপসাগরীয় অঞ্চলের কোনো দেশে ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর এটি প্রথম সফর।

এমন পরিস্থিতিতে বেনেট আরব আমিরাত সফর করছেন যখন পরমাণু চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করতে ইরানের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে বিশ্বের শক্তিধর দেশগুলো। তবে নতুন যে কোনো চুক্তির বিরোধী ইসরায়েল।

গত বছর যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যস্থতায় ইসরায়েলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্বাভাবিক করে সংযুক্ত আরব আমিরাত। আরব আমিরাতের পথ অনুসরণ করে বাহরাইন, মরক্কো ও সুদানও ইসরায়লের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে।

এদিকে ইসরায়েলের সঙ্গে এ চার দেশের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার বিষয়টিকে ‘পিঠে ছুরি মারার’ সঙ্গে তুলনা করেছে ফিলিস্তিনিরা।