বুশেহর পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের পাশে আকাশ প্রতিরক্ষা মহড়া চালিয়েছে ইরান। দেশটির পরমাণু প্রকল্প নিয়ে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যে এ মহড়া চালানো হলো।

দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে এ তথ্য জানায় আলজাজিরা।

খবরে বলা হয়, সোমবার দিনের শুরুর দিকে বুশেহর প্রদেশের দক্ষিণে এবং পারস্য উপসাগরের কিছু অংশে এ মহড়া চালানো হয়।

ভিয়েনায় বিশ্ব শক্তিগুলোর সঙ্গে পরমাণু চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করা নিয়ে কোনো সমঝোতা ছাড়াই আলোচনা শেষ হওয়ার কয়েকদিন পর এ মহড়া চালাল ইরান।

এদিকে ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে বিশ্বের শক্তিধর দেশগুলোর মধ্যে হওয়া এ চুক্তি পুনরুজ্জীবিত হোক তা চায় না ইসরায়েল। একই সঙ্গে দেশটি ইরানের পরমাণু স্থাপনাগুলোতে হামলার হুমকি দিয়ে আসছে। এমন পরিস্থিতিতে ইরানের মহড়া বেশ গুরুত্ব বহন করছে।

এ মাসের শুরুতে ইরানের অন্যতম পরমাণু স্থাপনা নাতাঞ্জের পাশে আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছিল। সে সময় দেশটির সংবাদমাধ্যম জানায়, এ ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়েছিল মহড়ার অংশ হিসেবে কোনো হামলা প্রতিহত করার জন্য নয়।

এ নাতাঞ্জ পরমাণুকেন্দ্রে ২০২০ ও ২০২১ সালে দুটি নাশকতার ঘটনা ঘটেছে। এগুলোর জন্য ইসরায়েলকে দায়ী করেছে ইরান। এ ছাড়া জুনে খারাজে একটি সেন্টিফিউজ ওয়ার্কশপেও নাশকতার ঘটনা ঘটে। যার জন্যও তেল আবিবকে দায়ী করে তেহরান।