নতুন বছর শুরু হওয়ার পর এক সপ্তাহের মধ্যে আরও একটি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। বিবিসির প্রতিবেদবন বলছে, দেশটি সন্দেহভাজন একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে।

উত্তর কোরিয়া একটি হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করেছে দাবি করার এক সপ্তাহের মধ্যেই এ পরীক্ষা চালিয়েছে বলে জানাচ্ছে বিবিসি।

দক্ষিণ কোরিয়া জানিয়েছে, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এ উৎক্ষেপণ শনাক্ত করা হয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ (জেসিএস) এক বিবৃতিতে বলেছে, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ২৭ মিনিটে ক্ষেপণাস্ত্রটির উৎক্ষেপণ শনাক্ত হয়, যেটি সম্ভবত একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র। ক্ষেপণাস্ত্রটি উত্তর কোরিয়ার একটি এলাকা থেকে পূর্ব উপকূলের সাগরের দিকে ছোড়া হয়েছে।

জাপানের কোস্ট গার্ডও এ উৎক্ষেপণের খবর দিয়েছে, উত্তর কোরিয়া একটি ‘ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের মতো বস্তু’ নিক্ষেপ করেছে বলে মত তাদের।

বারবার ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণে ওই অঞ্চল অস্থিতিশীল হওয়ার ঝুঁকিতে পড়ছে অভিযোগ করে এর নিন্দা জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান।

বিবিসি বলছে, ছয়টি দেশ উত্তর কোরিয়াকে তাদের ‘অস্থিতিশীল কর্মকাণ্ড’ বন্ধ করার আহ্বান জানিয়ে একটি বিবৃতি জারি করার পরপরই এ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ হয়েছে।

সোমবার যৌথ একটি বিবৃতি দিয়ে দেশটির গত সপ্তাহের উৎক্ষেপণের নিন্দা করে এ থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়েছিল মার্কিন মিশন, ফ্রান্স, আয়ারল্যান্ড, জাপান, যুক্তরাজ্য এবং আলবেনিয়া।