সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অপহরণ ও হত্যার হুমকির অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ৭২ বছর বয়সী নিউইয়র্কের ওই বাসিন্দাকে সোমবার মার্কিন সিক্রেট সার্ভিস গ্রেপ্তার করে। তিনি সিক্রেট সার্ভিসকে ফোন করে একাধিকবার ট্রাম্পকে হুমকি দেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

হুমকিতে ট্রাম্পকে ‘হিটলার’ বলে অভিহিত করেন টমাস ওয়েলনিকি। তিনি বলেন, ট্রাম্পের মৃত্যু নিশ্চিত করার জন্য তিনি সবকিছুই করবেন। খবর এএফপির।

ব্রুকলিনের সরকারি কৌঁসুলিরা বলেন, টমাস ওয়েলনিকি নামের ওই ব্যক্তি সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টকে জ্ঞাতসারে-ইচ্ছাকৃতভাবে হত্যা, অপহরণ ও শারীরিকভাবে ক্ষতি সাধনের হুমকি দিয়েছিলেন।

টমাস ওয়েলনিকির বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ হলো, তিনি ২০২০ সালের জুলাইয়ে এক সাক্ষাৎকারে ক্যাপিটল পুলিশকে বলেছিলেন যে যদি ট্রাম্প ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হেরে যান, আর পদত্যাগ করতে অস্বীকৃতি জানান, তবে তিনি অস্ত্র সংগ্রহ করবেন। তাকে হত্যা করবেন।

টমাস ওয়েলনিকি গত বছরের ৪ জানুয়ারি সিক্রেট সার্ভিসকে তার মুঠোফোন থেকে ফোন করেন। তিনি দুটি ভয়েস মেইল দেন। এই ভয়েস মেইলে তিনি ট্রাম্পকে হত্যার উদ্দেশ্যের কথা জানান।