সারাদেশের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের শপথ পাঠ করানো হবে। দেশের ৬৫ হাজার ৬২০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক কোটি ৪০ লাখ শিশু একযোগে এ শপথ পড়বে।

এর আগে মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের শপথ পাঠ করানোর সরকারি সিদ্ধান্ত হয়েছিল। তাদের মতো প্রাথমিক বিদ্যালয়েও নতুন এ শপথ পাঠ করার বিষয়ে নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ নজরুল ইসলামের সই করা এক অফিস আদেশ থেকে এ তথ্য জানা গেছে। ওই আদেশে সব জেলা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এবং প্রাথমিকের বিভাগীয় উপপরিচালকদের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রতিদিনের সমাবেশে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের পর নতুন শপথ পাঠ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

যে শপথবাক্য পাঠ করতে হবে: 'জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পাকিস্তানি শাসকদের শোষণ ও বঞ্চনার বিরুদ্ধে এক রক্তক্ষয়ী মুক্তিসংগ্রামের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জন করেছে। বিশ্বের বুকে বাঙালি জাতি প্রতিষ্ঠা করেছে তার স্বতন্ত্র জাতিসত্তা। আমি দৃপ্তকণ্ঠে শপথ করছি যে, শহীদের রক্ত বৃথা যেতে দেব না। দেশকে ভালোবাসব, দেশের মানুষের সার্বিক কল্যাণে সর্বশক্তি নিয়োগ করব। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের আদর্শে উন্নত, সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনার সোনার বাংলা গড়ে তুলব। মহান সৃষ্টিকর্তা আমাকে শক্তি দিন।'