দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতে ইলিশ রপ্তানির জন্য যেসব প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল, তাদের কে কত পরিমাণ মাছ রপ্তানি করেছে, তার তথ্য চেয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। গত সোমবার রপ্তানির অনুমোদন পাওয়া ৭৩টি প্রতিষ্ঠানকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। ৭ কার্যদিবসের মধ্যে এ তথ্য দিতে হবে। এর আগে ৪২টি প্রতিষ্ঠানকে চিঠি দিয়ে তাদের রপ্তানির তথ্য সংগ্রহ করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

গত বছর সেপ্টেম্বরে দু'দফায় ১১৫ প্রতিষ্ঠানকে দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতে ৪০ টন করে ইলিশ রপ্তানির অনুমোদন দেয় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। সব মিলিয়ে ৪ হাজার ৬০০ টন মাছ রপ্তানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল। গত বছরের ৩ অক্টোবরের মধ্যে এসব মাছ রপ্তানির সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছিল। রপ্তানির অন্যান্য সাধারণ নির্দেশনার পাশাপাশি প্রতিটি চালান (কনসাইনমেন্ট) রপ্তানি শেষে সংশ্নিষ্ট কাগজপত্র বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়ার শর্ত দেওয়া হয়।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের রপ্তানি অনুবিভাগের সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রপ্তানির অনুমোদন নেওয়া অনেক প্রতিষ্ঠানই কোনো কাগজপত্র জমা দেয়নি। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে, যেসব প্রতিষ্ঠান কাগজপত্র জমা দেয়নি, তারা মাছ রপ্তানি করেনি। এ রকম প্রতিষ্ঠানের সংখ্যাই বেশি। প্রতিষ্ঠানগুলো কেন মাছ রপ্তানি করেনি, তা জানার জন্যই এই তথ্য চাওয়া হয়েছে। যাতে ভবিষ্যতে এ ধরনের অনুমোদন দেওয়ার সময় প্রতিষ্ঠানের সক্ষমতা যাচাই করতে সুবিধা হবে।