টি-টোয়েন্টিতে তামিম ইকবালের স্ট্রাইক রেট নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে বেশ আগে থেকেই। পাওয়ার প্লেতেও স্লো খেলায় ফেসবুকের ক্রিকেট সমর্থকরা মজা করে বাঁহাতি এ ওপেনারের নাম দিয়েছেন ডট বাবা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পাশাপাশি মূল ধারার গণমাধ্যমেও সমালোচনা কম হয়নি। এভাবে হেয় হতে ভালো লাগেনি তামিমের। যে কারণে আন্তর্জাতিক টি২০ ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকেও বিষয়টি জানিয়ে দেন।

গতকাল বরিশাল বনাম ঢাকার ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী পর্ব চলাকালে মাঠে এক ফ্রেমে ধরা পড়লেন খালেদ মাহমুদ সুজন ও তামিম ইকবাল। মিনিট দশেকের আলাপ শেষে নিজ নিজ ড্রেসিংরুমে ফিরে যান তারা। সেখানেও কোচ সুজনকে স্পষ্ট জানিয়ে দেন, টি-টোয়েন্টি খেলবে না তিনি। 

সুজন বলেন, 'মাঠে দাঁড়িয়ে কথা বলে সমস্যার সমাধান হবে না। জালাল ভাই (ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস) এবং আমি একসঙ্গে বসে কথা বলব বিপিএল শেষে। যদিও সে তার সিদ্ধান্তে অটল। এরপরও আমরা চাই সমস্যার সমাধান করতে।'

গত ২২ জানুয়ারি বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও বলেছিলেন, তামিম তাকে বলেছেন আর টি-টোয়েন্টিতে ফিরবেন না। বিসিবি সভাপতির মতো সুজনও বিশ্বাস করেন, ওপেনিংয়ে তামিমের বদলি হওয়ার মতো কেউ এখনও তৈরি হয়নি দেশে। যে কোনো ফরম্যাটে তিনিই সেরা ওপেনার।