মধ্যপ্রাচ্যের দেশ লিবিয়া থেকে ইতালির ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপ ল্যাম্পেদুসা যাওয়ার পথে হাইপোথার্মিয়ায় (শরীরের তাপমাত্রা কমে যাওয়া) ৭ বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার ইতালির অ্যাগ্রিজেনটো শহরের প্রসিকিউটর লুইগি প্যাট্রোনাজ্জিওর এক বিবৃতির বরাতে এ তথ্য জানায়  বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

বিবৃতিতে বলা হয়, কোস্টগার্ডের সদস্যরা রাতে ল্যাম্পেদুসার কাছে একটি জনবসতিহীন দ্বীপ ল্যাম্পিওন থেকে ১৮ মাইল দূরে (২৯ কিলোমিটার) নৌকাটি দেখতে পান। এর পর উদ্ধার অভিযান পরিচালিত হয়। 

এ বিষয়ে লুইগি প্যাট্রোনাজ্জিওর অফিস অবৈধ অভিবাসন ও নরহত্যার অভিযোগে তদন্ত শুরু করেছে।

ল্যাম্পেদুসার মেয়র সালভাতোর মার্টেলো সাতজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।

মার্টেলো বলেন, ওই নৌকায় ২৮০ জন অভিবাসনপ্রত্যাশী ছিলেন। তাদের মধ্যে অধিকাংশই বাংলাদেশ ও মিসরের নাগরিক।

ইউরোপে ঢোকার জন্য হাজার হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশীর কাছে ইতালি অন্যতম একটি রুট হিসেবে বিবেচিত হয়।

সরকারি তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত এক হাজার ৭৫১ জন অভিবাসনপ্রত্যাশী ইতালির বন্দরে নেমেছেন।