‘আগ্রাসন’ রুখে দেওয়ার জন্য রাশিয়ার সাহায্য চেয়েছে ইউক্রেনের বিচ্ছিন্নতাবাদীরা।

বুধবার মস্কোর প্রতি এ আহ্বান জানানো হয়। খবর রয়টার্সের।

দোনেৎস্ক অঞ্চলের প্রধান ডেনিস পুশলিন বলেন, আমি দোনেৎস্ক পিপলস রিপাবলিকের জনগণের বিরুদ্ধে ইউক্রেনীয় সরকারের সামরিক আগ্রাসন প্রতিহত করার জন্য সাহায্য চাইছি।

এদিকে প্রতিবেশী দেশ ইউক্রেনে বড় ধরনের হামলার মঞ্চ প্রস্তুত করে রেখেছে রাশিয়া— যুক্তরাষ্ট্র এ বিষয়ে সতর্ক করে দেওয়ার পর দোনেৎস্ক অঞ্চলে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সাহায্য চেয়ে মস্কোর প্রতি বিচ্ছিন্নতাবাদীদের আহ্বানের পর দোনেৎস্ক অঞ্চলে বৃহস্পতিবার সকালে অন্তত পাঁচটি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। ঘটনাস্থলের দিকে যেতে দেখা গেছে সেনাবাহিনীর চারটি ট্রাককে।

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দোনেৎস্ক ও লুহানস্ককে স্বাধীন হিসেবে ঘোষণা দেওয়ার পর সেখানে শান্তির জন্য সেনা পাঠানোর সিদ্ধান্তের কথা জানান। এর পর ওই দুই অঞ্চলে সংঘর্ষ তীব্র হয়েছে। এদিকে রাশিয়ার এ পদক্ষেপকে ‘আক্রমণের সূচনা’ হিসেবে দেখছে পশ্চিমারা। যদিও মস্কো আগে থেকেই বলে আসছে, তাদের হামলা চালানোর কোনো পরিকল্পনা নেই। কিন্তু ইউক্রেনের সীমান্তে লাখেরও বেশি রুশ সেনা মোতায়েন করে রাখা হয়েছে।