ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ব্যাপক হামলা চালাচ্ছে রাশিয়ার বাহিনী। গোলা, ক্ষেপণাস্ত্র, ড্রোনের আঘাতে জর্জরিত পূর্ব ইউরোপের দেশটির বহু সামরিক অবকাঠামো, আবাসিক ভবন, হাসপাতাল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ইতোমধ্যে ধ্বংস হয়ে গেছে। একই সঙ্গে দেশটির মারিওপোল শহর পরিণত হয়েছে ‘দুনিয়ার নরকে’।

এমন অবস্থায় নিজেদের জীবন রক্ষা করতেই হিমশিম খাচ্ছেন ইউক্রেনীয়রা। তবে পরিস্থিতি যতই ভয়ানক হোক তারা কিন্তু তাদের কবি তারাস শেভচেঙ্কোকে মোটেও ভোলেননি। তারা এ কবির ভাস্কর্য রুশ বাহিনীর ধ্বংসযজ্ঞ থেকে রক্ষায় বালির বস্তা দিয়ে দেয়াল তৈরি করেছেন। খবর বিবিসির।

পূর্ব ইউক্রেনের খারকিভে কয়েক সপ্তাহ ধরে ব্যাপক বোমা হামলা চালাচ্ছে রুশ বাহিনী। যার কারণে শহর কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় বাসিন্দারা বাধ্য হয়েছেন তাদের কবি শেভচেঙ্কোর ভাস্কর্য রক্ষায় পদক্ষেপ নিতে। তারা বালি ভর্তি বস্তা দিয়ে কবির ভাস্কর্যের চারদিকে দেয়াল তুলেছেন যেন বোমার আঘাতেও এটি ক্ষতিগ্রস্ত না হয়।

শেভচেঙ্কো ইউক্রেনের ‘জাতীয় কবি’। তিনি দেশটির অন্যতম সাহিত্য ব্যক্তিত্ব। ফলে তার ভাস্কর্য শহরের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রতীক।