সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ইউক্রেনে অতিরিক্ত ৮০ কোটি ডলার মূল্যের যে সামরিক সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন, সেসব সরঞ্জাম দেশটিতে গিয়ে পৌঁছাতে শুরু করেছে। রোববার হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে সিএনএন এ তথ্য জানিয়েছে।

সিএনএন বলছে, মার্কিন সামরিক সহায়তার কিছু চালান ইউক্রেনে যাওয়া শুরু করেছে। এর আগে গত সপ্তাহে ইউক্রেনে অতিরিক্ত ৮০ কোটি ডলার মূল্যের সামরিক সহায়তা দেওয়ার প্রস্তাবের অনুমোদন দেন জো বাইডেন। খবর বিবিসির

তখন প্রেসিডেন্ট বলেন, রাশিয়ার ‘বৃহত্তর হামলা’ মোকাবিলা করার জন্য তৈরি নতুন অস্ত্রও এই অনুমোদনে অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

ইউক্রেনে এই অতিরিক্ত ৮০ কোটি ডলারসহ মোট তিন বিলিয়ন ডলারের ওপরে সামরিক সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বাইডেন প্রশাসন।

এদিকে এক চিঠিতে ইউক্রেনে অস্ত্র দেওয়া বন্ধ না করলে যুক্তরাষ্ট্রকে ‘অপ্রত্যাশিত পরিণতি’ ভোগ করতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে রাশিয়া।

চিঠিতে বলা হয়েছে, ইউক্রেনকে ‘অত্যন্ত স্পর্শকাতর’ অস্ত্র-সরঞ্জাম দিয়ে ‘সংঘাতে তেল ঢালছে’ যুক্তরাষ্ট্র, যা ‘অপ্রত্যাশিত পরিণতি’ ডেকে আনতে পারে।