ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, আমরা আমাদের সুতা পরিমাণ ভূমিও কাউকে দখল করতে দেব না।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন। রোববার এটি প্রচারিত হয়। খবর আলজাজিরার।

তিনি বলেন, পূর্বের দোনবাস অঞ্চলের লড়াইয়ের ফল পুরো যুদ্ধের দিক নির্ণয় করবে। 

রাশিয়া দোনবাস দখলে নিতে পারলে কিয়েভের নিয়ন্ত্রণও নেওয়ার চেষ্টা করতে পারে বলে সতর্ক করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট।

জেলেনস্কি বলেন, এ জন্য এখন সবচেয়ে জরুরি বিষয় হলো—তাদের কোনোমতে সুযোগ না দেওয়া, প্রতিরোধ গড়ে তোলার এখনই সময়। কেননা, এ লড়াই… পুরো যুদ্ধের মোড়র ঘুরিয়ে দিতে পারে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, কেননা, আমি রাশিয়ার সেনা ও দেশটির নেতাকে বিশ্বাস করি না। আমরা বুঝেছি, আমরা তাদের সঙ্গে লড়াই করেছি, ফলে তারা চলে গেছে; তারা কিয়েভ থেকে চলে গেছে— উত্তর অংশ ও চেরনিহিভ থেকেও। এর অর্থ এই নয় যে— যদি তারা দোনবাস দখল করতে পারে তবে তারা কিয়েভের দিকে আর আসবে না।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে কিয়েভ সফরের আহ্বান জানিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট।

তিনি বলেন, আমি মনে করি তিনি আসবেন। তবে অবশ্যই এটি তার সিদ্ধান্ত। আমি মনে করি, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নেতা, শুধু এ জন্যই এখানে কী হচ্ছে তা দেখতে তার আসা উচিত।

এদিকে জেলেনস্কি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাঁক্রোকে রাশিয়ার সেনারা যে ‘গণহত্যা’  চালিয়েছে তার প্রমাণ দেখতে ইউক্রেন সফরের আহ্বান জানিয়েছেন।

এর আগে রাশিয়ার সেনাদের নৃশংসতাকে ম্যাঁক্রো ‘গণহত্যা’ হিসেবে অভিহিত করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিলেন।

২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া এ দোনবাস অঞ্চলের রক্ষায় ইউক্রেনে হামলা শুরু করে। এর পর থেকে কিয়েভসহ দেশের বিভিন্ন এলকায় লাগাতার হামলা চালিয়ে এখন পূর্বাঞ্চলকে লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছে মস্কো।