সূর্যের আলো পৃথিবীতে পৌঁছাতে লাগে প্রায় ৮ মিনিট ২০ সেকেন্ড। সৌরমণ্ডলের সবচেয়ে দূরবর্তী গ্রহে সেই আলো পৌঁছাতে লাগে প্রায় চার ঘণ্টা। সূর্য থেকে চার বিলিয়ন কিলোমিটার দূরে সৌরজগতের শেষ গ্রহ নেপচুন। সেই নেপচুন বর্তমানে অনন্য পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। দুই দশক ধরে বিস্তৃত পর্যবেক্ষণ হচ্ছে নেপচুন নিয়ে। প্রকাশ করা হয়েছে আগের চেয়ে নেপচুনের তাপমাত্রা পরিবর্তনের আরও সম্পূর্ণ চিত্র। গ্রহটি তার বায়ুমণ্ডলীয় তাপমাত্রায় আশ্চর্যজনক পতনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। নেপচুনের স্ট্র্যাটোস্ম্ফিয়ারে গড় তাপমাত্রা ২০০৩ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে প্রায় ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমে গেছে।

বিজ্ঞানীদের মতে, তাপমাত্রায় এই হেরফের অনভিপ্রেত। এ নিয়ে গবেষণা নিবন্ধে বলা হয়েছে, দৃশ্যমান আলোক বর্ণালির বাইরে তাপ-ইনফ্রারেড তরঙ্গদৈর্ঘ্যের পর্যবেক্ষণের ওপর নির্ভর করে, যা ওই গ্রহের বায়ুমণ্ডল থেকে নির্গত তাপ অনুভব করে। সূর্য থেকে অনেক বেশি দূরত্বের কারণে এবং নেপচুন অক্ষের দিকে বেশি কাত হওয়ায় পৃথিবীর মতো ঋতু অনুভব করে। এই গ্রহ সূর্যের চারপাশে একটি কক্ষপথ সম্পূর্ণ করতে প্রায় ১৬৫ বছর নেয়। গ্রহের ঋতুগুলো খুব দীর্ঘ। প্রতিটি ঋতু ৪০ বছরের বেশি স্থায়ী হয়। সূত্র :ইউরো নিউজ।