রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ায় তার অস্ত্রোপচার প্রয়োজন। এজন্য সাময়িকভাবে তিনি ক্ষমতা হস্তান্তর করছেন বলে খবর বেরিয়েছে। 

রুশ সংবাদ মাধ্যমের বরাতে এমনটাই দাবি করা হয়েছে। খবর বিবিসির।

টেলিগ্রাম চ্যানেল এসভিআর ক্রেমলিনের এক শীর্ষ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে দাবি করা হয়েছে, পুতিন কয়েক দিনের জন্য রাশিয়ার গোয়েন্দা সংস্থা কেজিবির সাবেক প্রধানের হাতে দেশের ক্ষমতা হস্তান্তর করছেন।

গত দুই মাসের বেশি সময় ধরে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধ চলছে। এখনও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। এ পরিস্থিতিতে প্রেসিডেন্টের পদ থেকে পুতিনের সরে আসা যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

পুতিনের অস্ত্রোপচারের তারিখ এখনও ঠিক হয়নি এবং এ নিয়ে আলোচনা চলছে। 

রিপোর্টে বলা হয়েছে, দ্রুত অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন নেই তবে বেশি দেরিও করা যাবে না। এপ্রিলের দ্বিতীয় সপ্তাহে অস্ত্রোপাচার হওয়ার কথা ছিল, তবে ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে তা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে ২০২০ সালের নভেম্বরে ‘দ্য সান’সহ কয়েকটি ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড পুতিনের পারকিনসন রোগে আক্রান্ত হওয়া এবং অসুস্থতার কারণে ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনার খবর প্রকাশ করেছিল।