ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত রাশিয়ার অন্তত ২৮ হাজার ৩০০ সেনা নিহত হয়েছেন। 

বুধবার ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানায়। খবর আনাদোলুর।

বিবৃতিতে দাবি করা হয়, শুধু গত ২৪ ঘণ্টাতেই নিহত হয়েছেন চারশ’র মতো রুশ সেনা।

ইউক্রেন বলছে, এ পর্যন্ত তারা রাশিয়ার ২০২টি যুদ্ধবিমান, ১৬৭টি হেলিকপ্টার, ৪৪১টি ড্রোন, এক হাজার ২৫১টি ট্যাংক, তিন হাজার ৪৩টি সাঁজোয়া যান ও ৫৮৬টি কামান ধ্বংস করেছে।

এ ছাড়াও ১৯৯টি মাল্টিপল রকেট লঞ্চার সিস্টেম, দুই হাজারটি যানবাহন, ১০২টি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র, ৯১টি অ্যান্টি-এয়ারক্র্যাফ্ট সিস্টেম ও ১৩টি জাহাজ ধ্বংস করার দাবি করেছে  ইউক্রেন।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, গত কয়েকদিনে রাশিয়া সেনারা স্লোভিয়ানস্ক, সেন্ট্রাল ক্রিভি রিহ এবং জাপোরিঝঝিয়া এলাকায় ‘ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির’ শিকার হয়েছে।

তবে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সর্বশেষ ২৫ মার্চ জানিয়েছিল, তাদের এক হাজার ৩৫১ সেনা ইউক্রেনে নিহত হয়েছে।

জাতিসংঘের অনুমান, এ যুদ্ধে এ পর্যন্ত ইউক্রেনে তিন হাজার ৭৫২ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত ও চার হাজার ৬২ জন আহত হয়েছেন। তবে হতাহতের প্রকৃত সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার তথ্যমতে, আগ্রাসন শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত ৬২ লাখ মানুষ দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। আর অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত হয়েছেন ৭৭ লাখ মানুষ।

ইউক্রেনে ২৪ ফেব্রুয়ারি আগ্রাসন শুরু করে রাশিয়া। একে দেশটি ‘বিশেষ সামরিক অভিযান’ হিসেবে অভিহিত করে আসছে।