চাঁদপুরে পিকআপভ্যান ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও দুজন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টায় চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক সড়কের ঘোষেরহাট এলাকার মিয়ারবাজারে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ ঘটনায় নিহতরা হলেন- হাজীগঞ্জ উপজেলার মাহবুবুল আলমের মেয়ে ফাতেমা আলম (২৪) এবং একই উপজেলার হোসেন পাটওয়ারীর ছেলে আবদুল্লাহ (২৫)। তারা দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিতে হাজীগঞ্জ উপজেলা থেকে চাঁদপুর শহরে আসছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে ওসি জানান, অটোরিকশাটি হাজীগঞ্জ উপজেলা থেকে চাঁদপুর শহরের দিকে আসছিল। ওই অটোরিকশায় করে ফাতেমা, আবদুল্লাহসহ কয়েকজন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছিল। তাদের গন্তব্য ছিল চাঁদপুরের আল আমিন স্কুল অ্যান্ড কলেজ। কিন্তু বিপরীত দিক থেকে আসা একটি সিমেন্টবাহী পিকাপের সাথে তাদের অটোরিকশাটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

এতে ফাতেমা ঘটনাস্থলেই মারা যান। আহত অবস্থায় তিনজনকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক আবদুল্লাহকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকি দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে বলে হাসপাতালের জরুরি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে। 

চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক আনিসুর রহমান বলেন, হাসপাতালে নিয়ে আসার পর দুর্ঘটনায় আহত আবদুল্লাহ নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। দুর্ঘটনায় আহত বাকি দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

চাঁদপুর মডেল থানার ওসি আব্দুর রশিদ বলেন, দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে। দুর্ঘটনার পর অটোরিকশা ও পিকআপভ্যানের চালক পালিয়ে গেছে। তবে আটকের চেষ্টা চলছে।