যুক্তরাষ্ট্রের খ্যাতনামা প্রযুক্তি উদ্যোক্তা ও বিশ্বের শীর্ষ ধনকুবের ইলন মাস্কের বিরুদ্ধে বিমানবালাকে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনা হয়েছে।

তবে মাস্ক অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, ‘আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।’

ঘটনাটি ২০১৬ সালের। অভিযোগ আছে, মাস্ক যৌন হয়রানি করেছিলেন একজন বিমানবালাকে। ঘটনা ধামাচাপা দিতে খরচ করেছেন আড়াই লাখ ডলার। 

বিমানবালার বন্ধুর বরাত দিয়ে বিজনেস ইনসাইডার জানিয়েছে, ইলন মাস্ক একজন বিমানবালার সামনে নগ্ন হয়েছিলেন। তিনি জোরপূর্বক বিমানবালার উরুতে স্পর্শ করেছিলেন। মাস্ক বিমানবালাকে একটি ‘ঘোড়া’ কিনে দেওয়ারও প্রস্তাব দিয়েছিলেন, যদি তিনি মাস্কের সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠ হোন এমন শর্তে। তবে মাস্কের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় স্পেসএক্সের পক্ষ থেকে অর্থ ও সমঝোতার মাধ্যমে মিটিয়ে ফেলা হয় ঘটনাটি।