সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন নজরুল ইসলাম (৬০)। ছয়-সাত মাস আগে তার ক্যান্সার ধরা পড়ে। তখন থেকে রিকশা চালানো বন্ধ। এর মধ্যে তার কিছুটা মানসিক সমস্যাও দেখা দেয়। রাতবিরেতে হঠাৎ হঠাৎ বাসা থেকে বের হয়ে যেতেন। আবার ফিরেও আসতেন। রোববার রাতেও তেমনি বেরিয়েছিলেন। তবে এবার আর ফেরা হয়নি।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর কাজলা এলাকায় কোনো যানবাহন তাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। হাসপাতালে নেওয়ার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

নিহতের ছেলে হাবিব উল্লাহ জানান, পরিবারের সঙ্গে যাত্রাবাড়ীর কাজলা এলাকার উত্তরপাড়ায় থাকতেন নজরুল। তার দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে। রোববার রাতে তিনি বাসা থেকে বের হওয়ার পরে আনুমানিক রাত ১টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে। খবর পেয়ে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

নিহতের ভাতিজা আজিজুর রহমান জানান, বেপরোয়া গতির কোনো একটি গাড়ি তাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় তিনি রাস্তায় পড়ে ছিলেন। পরে রাত সোয়া ২টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। এ সময় চিকিৎসক জানান, পথেই তার মৃত্যু হয়েছে।

যাত্রাবাড়ী থানার এসআই সাব্বির হোসেন বলেন, কাজলা ব্রিজের কাছে রাস্তা পার হওয়ার সময় দুর্ঘটনাটি ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে দুর্ঘটনায় দায়ী যানটি শনাক্ত করা যায়নি।