ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, যুদ্ধের অবসানে তিনি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে দেখা করতে ইচ্ছুক। সোমবার সুইজারল্যান্ডের দাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের বার্ষিক সম্মেলনে ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে দেওয়া ভাষণে জেলেনস্কি এ কথা বলেন।

জেলেনস্কি জানান, পুতিনই একমাত্র রুশ কর্মকর্তা, যুদ্ধের অবসান কীভাবে করা যায়- সে বিষয়ে যাঁর সঙ্গে আলোচনা করতে ইচ্ছুক তিনি।

একজন দোভাষীর মাধ্যমে তিনি বলেন, রাশিয়ান ফেডারেশনের সব সিদ্ধান্ত নেন প্রেসিডেন্ট। তাই আমরা যদি ব্যক্তিগতভাবে তাঁকে (পুতিন) ছাড়া এ যুদ্ধের সমাপ্তির বিষয়ে কথা বলি, তাহলে সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে না। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ছাড়া দেশটির আর কারও সঙ্গে কোনো ধরনের বৈঠকের বিষয়টি মেনে নিতে পারেন না বলে জানান তিনি।

এদিকে ইউক্রেনীয় সেনাদের ঘেরাও করতে মঙ্গলবার ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে সর্বাত্মক হামলা শুরু করেছে রুশ সেনারা। এই হামলার ফলাফল ওই অঞ্চলে রুশ বাহিনীর সফলতা বা ব্যর্থতা নির্ধারণ করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। যুদ্ধের ঠিক তিন মাস পর ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভে ভূগর্ভস্থ মেট্রো চালু করার পরিকল্পনা করছে কর্তৃপক্ষ। যেখানে হাজার হাজার বেসামরিক মানুষ কয়েক মাস ধরে টানা বোমা হামলা থেকে বাঁচতে আশ্রয় নিয়ে রয়েছে।

অন্যদিকে রাশিয়ার তেল আমদানির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) 'কয়েক দিনের মধ্যেই' সম্মত হতে পারে বলে জানিয়েছে জার্মানি। ইইউর ২৭ সদস্য দেশের অনেকেই রাশিয়ার তেলের ওপর বহুলাংশে নির্ভরশীল। তাই এ ব্লকটি ওই সরবরাহ থামাতে দ্রুত উদ্যোগ নিচ্ছে না বলে অভিযোগ কিয়েভের। খবর বিবিসি, সিএনএন ও রয়টার্সের।