রাশিয়া লুহানস্কে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে বলে স্বীকার করে নিয়েছেন ইউক্রেনের এক জ্যেষ্ঠ সেনা কর্মকর্তা। এ অঞ্চলে আকাশ ও স্থল উভয়ক্ষেত্রেই মস্কো আধিপত্য ধরে রেখেছে।

ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনীর জেনারেল স্টাফ ওলেক্সি গোরোমভ এক ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন। খবর বিবিসির।

ওলেক্সি বলেন, ইউক্রেনের সেনারা সর্বশক্তি দিয়ে পরিস্থিতি বদলানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ইউক্রেনের এ জ্যেষ্ঠ সেনা কর্মকর্তা বলেন, ‘হ্যাঁ, শত্রুরা এখন আকাশ ও স্থলে সুবিধাজনক অবস্থায় রয়েছে। কিন্তু আমরা সম্ভাব্য সবকিছুই করছি। মিত্রদের কাছ থেকে পাওয়া আধুনিক অস্ত্র আমাদের বিজয়কে ত্বরান্বিত করবে।

তিনি বলেন, সেভেরোদোনেৎস্ক এলাকার ‘পরিস্থিতি জটিল, কিন্তু স্থিতিশীল’।

ওলেক্সি বলেন, রাশিয়া এখানে ‘ক্লাসিক্যাল’ পন্থায় হামলা চালাচ্ছে। তারা প্রথমে আকাশ থেকে হামলা করছে, এর পর গোলা ছুড়ছে এবং পরে পাঠাচ্ছে স্থল সেনাদের।

২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে হামলা শুরুর কিছুদিন পর নিজেদের লক্ষ্য পরিবর্তন করে মস্কো। ইউক্রেনের পূর্ব ও দক্ষিণাঞ্চলকে গুরুত্ব দেওয়ার কথা জানানোর পর থেকে দোনবাস অঞ্চলে হামলা জোরদার করে রুশ সেনারা। এর পর গুরুত্বপূর্ণ বন্দরনগরী মারিওপোলের দখলে নেয় রাশিয়া। এখন তারা দোনবাস অঞ্চলে ব্যাপক হামলা চালাচ্ছে।