বাংলাদেশকে তিস্তার পানি দেওয়া প্রসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের কৃষিমন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় বলেন, তিস্তায় পানি নেই। কয়েক মাস ছাড়া সম্পূর্ণ শুকনো পড়ে থাকে তিস্তা, বালু ছাড়া কিছুই থাকে না। ভয়ংকর তিস্তা সরু খালে পরিণত হয়। এমন পরিস্থিতিতে তিস্তার ব্যাপারটা আমাদের কাছে কিছুটা সমস্যার।

বৃহস্পতিবার কলকাতায় 'এপপ্লোরিং ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট বিটুইন বাংলাদেশ অ্যান্ড ইন্ডিয়া' শীর্ষক এক আলোচনা অনুষ্ঠানে শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় এ মন্তব্য করেন। ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কমার্স (আইসিসি) এ আয়োজন করে।
এ সময় তিনি বলেন, ভারতের অনেক প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে সিমেন্ট কারখানা করছে, বিদ্যুৎকেন্দ্র বানাচ্ছে। বাংলাদেশে কৃষিপণ্য রপ্তানির অনেক সুযোগ আছে। নদীমাতৃক বাংলাদেশ যদিও কৃষিতে অনেক উন্নত, তবুও উভয় দেশের কিছু কিছু প্রয়োজনীয়তা আছে। আমরা একে অপরের পরিপূরক হতে পারি। পদ্মা সেতু নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের কৃষিমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন, এই সেতুর মধ্য দিয়ে দুই দেশের সম্পর্ক আরও মজবুত হবে।
অনুষ্ঠানে পশ্চিমবঙ্গের সমবায়মন্ত্রী অরূপ রায়ও বলেন, পদ্মা সেতু চালু হলে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হবে।
কলকাতায় নিযুক্ত বাংলাদেশের উপ-হাইকমিশনার আন্দালিব ইলিয়াস বলেন, বাংলাদেশ থেকে যে পরিমাণ পণ্য আমরা ভারতে রপ্তানি করি, এর থেকে বেশি পণ্য আমদানি করা হয়। যদিও সেই ভারসাম্যহীনতা একটু একটু করে কমে আসছে।
অনুষ্ঠানে ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানান ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি রিজওয়ান রাহমান। তিনি বলেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের ফলে আমাদের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেক উন্নত হবে, দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য অনেক গতিশীল হবে। এর পাশাপাশি স্থলবন্দরগুলোর আধুনিকীকরণ দরকার বলেও জানান তিনি।