রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে বৈঠক আয়োজন করতে নিজের প্রস্তুতির কথা জানিয়েছে ইরান।

দাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আবদুল্লাহিয়ান এ কথা জানান। খবর তাসের।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তেহরান রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে বৈঠকের আয়োজক হতে প্রস্তুত।

তিনি বলেন, ইরান ‘সংলাপ ও কূটনীতিকে’ সমর্থন করে। আমি গত সপ্তাহে সের্গেই ল্যাভরভকে জানিয়েছি, রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে সংলাপ আয়োজনে ইরান প্রস্তুত রয়েছে।

ইরানের এ মন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোকে এ যুদ্ধের জন্য দায়ী করেন।

তিনি বলেন, ইউক্রেনে যে সংঘাত চলছে তা যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোর উসকানির কারণে ঘটেছে। ওই অঞ্চলে ন্যাটোর সামরিক উপস্থিতি বাড়ানোর মাধ্যমে ‘ক্রেমলিনকে এমন পদক্ষেপ নিতে তারা উসকে দিয়েছে’।

ল্যাভরভ ও আমির-আবদুল্লাহিয়ানের মধ্যে ১৯ মে টেলিফোনে আলাপ হয়। সে সময় তারা পরমাণু চুক্তির পুনরুজ্জীবন ও ইউক্রেন সংকট নিয়ে আলাপ করেন।

ইউক্রেনে ২৪ ফেব্রুয়ারি আগ্রাসন শুরুর পর থেকে ইতোমধ্যে বেলারুশ ও তুরস্কে মস্কো-কিয়েভের মধ্যে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। যদিও এসব বৈঠক থেকে কোনো সুফল পাওয়া যায়নি।