ইউক্রেনের পশ্চিমা অস্ত্রভর্তি বড় একটি গুদাম ধ্বংস করা হয়েছে বলে দাবি করেছে রাশিয়া।

ইন্টারফ্যাক্সের বরাতে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা এ তথ্য জানায়।

খবরে বলা হয়, ধ্বংস করা ইউক্রেনের ওই গুদামে পশ্চিমা দেশগুলোর দেওয়া অস্ত্র ছিল।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, ইউক্রেনের টারনোপিল অঞ্চলের বড় একটি অস্ত্রের গুদাম রুশ সেনারা কালিব্র ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের সাহায্যে ধ্বংস করেছে। সেখানে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের দেশগুলোর দেওয়া অস্ত্র ছিল।

মন্ত্রণালয় আরও জানায়, দোনেৎস্ক ও খারকিভের কাছে রুশ সেনারা ইউক্রেনের তিনটি এসইউ-২৫ ফাইটার জেট ভূপাতিত করেছে।

২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরুর পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশ কিয়েভকে অস্ত্র সহায়তা দিয়ে আসছে। রাশিয়াও এ অস্ত্র যেসব গুদামে রাখা হয় সেখানে হামলা চালানোর দাবি করেছে বহুবার।

হামলা শুরুর প্রথমদিকে রুশ সেনারা কিয়েভের কাছাকাছি চলে গেলেও সেখান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। পরে জানানো হয় পরিবর্তন এসেছে তাদের যুদ্ধের পরিকল্পনায়। জানানো হয়, এখন দক্ষিণ ও পূর্ব ইউক্রেন দখলই মস্কোর অন্যতম লক্ষ্য।

এর পরই এ অঞ্চলে ব্যাপক হামলা চালাতে থাকে রুশ সেনারা। এর মধ্যে বড় ধরনের সাফল্য ধরা দেয় তাদের হাতে। দীর্ঘদিনের চেষ্টার পর বন্দরনগরী মারিওপোল নিয়ন্ত্রণে নিতে সক্ষম হয় রাশিয়া। এখন দেশটি দোনবাসের লুহানস্কের অধিকাংশ এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিতে সক্ষম হয়েছে। তবে সেভেরোদোনেৎস্ক শহরে অব্যাহত রয়েছে তীব্র লড়াই।