উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা অ্যাসাঞ্জকে যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেওয়ার বিষয়ে সম্মতি দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রীতি প্যাটেল।

শুক্রবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানায়।

এটি বলছে আদালত দেখেছে যে, প্রত্যর্পণ ‘তার মানবাধিকারের সঙ্গে বেমানান’ হবে না এবং যুক্তরাষ্ট্রে থাকাকালীন ‘তার সঙ্গে যথাযথ আচরণ করা হবে’।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিলের জন্য অ্যাসাঞ্জ ১৪ দিন সময় পাবেন।

২০১৯ সালে লন্ডনের ইকুয়েডর দূতাবাস থেকে অ্যাসাঞ্জকে বের করে দেওয়া হয়। এর পর তাকে গ্রেপ্তার করে ব্রিটিশ পুলিশ। তখন থেকেই তিনি দেশটির জেলে রয়েছেন।

২০১০ ও ২০১১ সালে তথ্য ফাঁসের অপরাধে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়ান্টেড তালিকায় রয়েছেন তিনি।