চলতি বছরের নভেম্বরে নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে গভর্নর নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ডেমোক্র্যাট ক্যাথি হকুল এবং রিপালিকান লী জালদীন। গত ২৮ জুন মঙ্গলবার রাজ্যের প্রাইমারি নির্বাচনে স্ব স্ব দলের পক্ষ থেকে তারা নির্বাচিত হয়েছেন। গত চার দশক থেকে নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের গভর্নর পদে কোনো রিপাবলিকান জয় পাননি।

সর্বশেষ নির্বাচিত ডেমোক্র্যাট গভর্নর এন্ড্রু কুমো যৌন ক্যালেংকারির অভিযোগে পদত্যাগ করলে লেফটেনেন্ট গভর্নর ক্যাথি হকুল দায়িত্ব গ্রহণ করেন। মধ্যপন্থী নেতা হিসেবে পরিচিত ক্যাথি হকুল আসছে নভেম্বরের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য দলের মধ্যে চ্যালেঞ্জে পড়েছিলেন।

সিটি পাবলিক অ্যাডভোকেট জুমেইন উইলিয়ামস এবং ল্য আইল্যান্ড থেকে নির্বাচিত কংগ্রেসম্যান টমাস সাউজিকে সহজেই প্রাইমারিতে পরাজিত করেছেন ক্যাথি হকুল। রাত ৯টায় কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ বন্ধ হওয়ার কিছুক্ষণ পরেই মার্কিন গণমাধ্যম তাঁকে ডেমোক্র্যাট দলের বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে।

এদিকে রক্ষণশীল রিপাবলিকান হিসেবে পরিচিত লী জালদীন ২০১৫ সাল থেকে রাজ্যের সাফক কাউন্টি এলাকা থেকে প্রতিনিধি পরিষদে প্রতিনিধিত্ব করে আসছেন। সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত লী জালদিনকে গত সপ্তাহে সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স সমর্থন করে বিবৃতি দিয়েছেন। দলের প্রাইমারি নির্বাচনে লী জালদীন উয়েস্টচেষ্টার কাউন্টি নির্বাহী রব এস্টোরিনো, ব্যবসায়ী হ্যারি উইলসন এবং সাবেক মেয়র জুলিয়ানির পুত্র এন্ড্রু জুলিয়ানিকে হারিয়ে দলের প্রার্থী হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন।

আসছে মধ্যবর্তী নির্বাচনে আমেরিকা জুড়ে ডেমোক্র্যাট দলের ভরাডুবি হবে বলে আশংকা করা হচ্ছে। এরপরও নিউইয়র্কের মতো ডেমোক্র্যাট প্রধান রাজ্যে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডেমোক্র্যাট ক্যাথি হকুলকে কতোটা চ্যালেঞ্জ করতে পরবেন, তা নির্ভর করছে আগামী কয়েক মাসের রাজনৈতিক পরিস্থিতির ওপর।