মহানবীকে (সা.) নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করে বিজেপি থেকে বহিষ্কৃত নেত্রী নূপুর শর্মাকে আবার তলব করে নোটিশ পাঠিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ। এর আগে পূর্ব কলকাতার নারকেলডাঙা থানা ও উত্তর কলকাতার আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার পুলিশ নোটিশ পাঠিয়ে তলব করেছিল।

নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে এ দুই থানাসহ কলকাতার কয়েকটি থানায় অন্তত ১০টি মামলা হয়েছে। এসব মামলায় সম্প্রীতি ভাঙার চেষ্টা, হিংসা ছড়ানোর অভিযোগসহ বিভিন্ন অভিযোগ করা হয়েছে।

এর আগে নারকেলডাঙা ও আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় করা মামলায় নূপুর শর্মাকে ডেকে পাঠানো হলেও তিনি আসেননি। পুলিশের কাছে সময় চেয়ে ই–মেইল পাঠান। একটি মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিশও জারি হয়।

এরপর আবার নারকেলডাঙা থানার পুলিশ দ্বিতীয়বারের জন্য নূপুর শর্মাকে তলব করে নোটিশ দেয়। তদন্ত কর্মকর্তার সঙ্গে তাঁকে দেখা করতে বলা হয়। এবারও তিনি সময় চেয়েছেন। এর ভিত্তিতে পুলিশ পরবর্তী পদক্ষেপ নিচ্ছে। এ ব্যাপারে আইনজীবীদের সঙ্গে আলোচনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সম্প্রতি মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)–কে অবমাননাকর মন্তব্য করে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ার পর বিজেপির মুখপাত্র পদ থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কৃত হন নূপুর শর্মা। এর জেরে গত মাসে পশ্চিমবঙ্গের হাওডা, নদীয়া, মুর্শিদাবাদসহ বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ-অবরোধ হয়। এর কারণে ভারতের বিভিন্ন শহরের একাধিক থানায় নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে মামলা ও অভিযোগ করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, কলকাতার বিভিন্ন থানায় ১০টি মামলা হয়েছে বহিষ্কৃত বিজেপি নেত্রীর নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে। সেই মামলাগুলো তদন্তের জন্য তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন। সে কারণেই তাঁর বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিস জারি করা হয়েছে।

নূপুর শর্মা বিরুদ্ধে দেশের একাধিক রাজ্যে মামলা হলেও কোনো রাজ্যের পুলিশই তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি। কলকাতা পুলিশই প্রথম নূপুরের বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিশ জারি করেছে।