থাইল্যান্ডে নাইটক্লাবে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অন্তত ১৩ জন নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন আরও ৪০ জন।

এক উদ্ধারকর্মীর বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে চোনবুরি প্রদেশের সাত্তাহিপ জেলার মাউন্টেইন বি নাইটস্পটে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এর অবস্থান ব্যাংকক থেকে ১৫০ কিলোমিটার দক্ষিণে। 

উদ্ধার সেবা বিভাগের পোস্ট করা ভিডিওতে দেখা যায়, ক্লাব থেকে লোকজন চিৎকার করতে করতে এলোপাতাড়ি দৌড়ে পালাচ্ছেন। তাদের কাপড়ে আগুন জ্বলতে দেখা গেছে।

উদ্ধার সেবা বিভাগ জানায়, ক্লাবের দেয়ালের অ্যাকুস্টিক ফোমের কারণে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। যার কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রায় তিন ঘণ্টা সময় লেগে গেছে।

আর জানানো হয়, নিহতদের মধ্যে চারজন নারী ও নয়জন পুরুষ। তাদের পাওয়া গেছে প্রবেশমুখে ও বাথরুমে। তাদের শরীরের বেশি কিছু জায়গা পুড়ে গেছে।

নিহতরা সবাই থাইল্যান্ডের বলে ধারণা করা হচ্ছে।

যে এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে তা পর্যবেক্ষণ করে ফ্লু তা লুয়াং থানার পুলিশ লেফটেন্যান্ট কর্নেল বোনসং ইংইয়ং এএফপিকে ফোনে বলেন, এখানে কোনো বিদেশির মৃত্যু হয়নি। 

এর আগে ২০০৯ সালে ব্যাংককের একটি ক্লাবে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৬৭ জন নিহত হয়েছিলেন। আহত হয়েছিলেন ২০০ এর বেশি মানুষ। এ ছাড়া ২০১২ সালে ফুকেটের একটি ক্লাবে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় চারজন নিহত হন।