যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ৭৫০ বিলিয়ন বা ৭৫ হাজার কোটি ডলারের একটি বিলে সই করেছেন। ফলে বিলটি আইনে পরিণত হয়েছে। এটিকে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সর্ববৃহৎ জলবায়ু প্যাকেজ হিসেবে দেখা হচ্ছে। বিলটির লক্ষ্য মূলত ধনীদের ট্যাক্স বাড়িয়ে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলা এবং স্বাস্থ্যসেবার ব্যয় নির্বাহ করা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এই আইনে প্রেসক্রিপশন ওষুধের দাম কমানোর জন্য কংগ্রেসের কয়েক দশকের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন অন্তর্ভুক্ত। বাইডেনের ঘোষিত কর্মসূচির মধ্যে অন্যতম ছিল এই আইন। ডেমোক্র্যাটদের প্রথম পরিকল্পনা করা সাড়ে ৩ লাখ কোটি ডলারের প্যাকেজের চেয়ে চূড়ান্ত সংস্করণটি আরও বেশি বিনয়ী।

মঙ্গলবার বিলটিতে সইয়ের পর বাইডেন বলেছেন, এটি তাঁর অভ্যন্তরীণ কর্মসূচির 'চূড়ান্ত অংশ'। বিলের প্যাকেজে রয়েছে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় ৩৭ হাজার ৫০০ কোটি ডলারের বরাদ্দ। এই ইস্যুতে এটাই যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি কেন্দ্রীয় বিনিয়োগ। হোয়াইট হাউসে এ বিল স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ডেমোক্র্যাট নেতাদের মধ্যে ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ার সেনেটর জো মানচিনও ছিলেন। দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী 'মূল্যস্ম্ফীতি কমানো আইন'-এ যার সমর্থন খুবই জরুরি ছিল। অনুষ্ঠানে বাইডেন রিপাবলিকানদের ব্যাপক সমালোচনা করেন।

তিনি বলেন, ঐতিহাসিক এ ক্ষণে ডেমোক্র্যাটরা মার্কিন জনগণের পক্ষ নিলেন আর প্রত্যেক রিপাবলিকান নিলেন বিশেষ স্বার্থের পক্ষ। এই বিলে সই করার ফলে মধ্যবর্তী নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটরা আরও বেশি সুবিধা পাবেন বলে আশা করা হচ্ছে। আগামী নভেম্বরে ভোট দেবেন মার্কিন ভোটাররা। এতে নির্ধারিত হবে আগামী দুই বছর কংগ্রেস কাদের নিয়ন্ত্রণে থাকবে। খবর রয়টার্স ও এএফপির।