টাঙ্গাইলের গোপালপুরে রাইস মিলের বয়লার ধসে তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় চার শ্রমিককে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার রাত ১০টার দিকে গোপালপুর পৌর শহরের ডুবাইল এলাকায় একতা রাইস মিলে এ ঘটনা ঘটে। এরপর পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার অভিযান চালান।

এ ঘটনায় নিহতরা হলেন- কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার পাঁচগাছি ইউনিয়নের বাচ্চু মিয়ার ছেলে আরিফ হোসেন (২৮), একই জেলার গোরুহাড়া গ্রামের করিম মোল্লার ছেলে নুরুল ইসলাম (৩৫) এবং নূর মোহাম্মদের ছেলে নাঈমুল ইসলাম (৩২)। তারা সবাই রাইস মিলের শ্রমিক ছিলেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী শ্রমিকরা জানান, একতা এগ্রো ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের স্বয়ংক্রিয় রাইস মিলের চাল ভর্তি বয়লারটি হঠাৎ করে ওপর থেকে নিচে পড়ে যায়। এ সময় বয়লারের নিচে শ্রমিকরা কাজ করছিলেন। বয়লার পড়ার বিকট শব্দ শুনে আশপাশের লোকজন গিয়ে চাপা পড়া শ্রমিকদের উদ্ধার করার চেষ্টা করেন।

শ্রমিকরা জানান, বয়লারটির চাল ধারণ ক্ষমতা ছিল এক হাজার মণ। স্টিলের তৈরি এ ধরনের বয়লার মাটি থেকে প্রায় ১৫ ফুট উচ্চতায় স্থাপন করা হয়। ২৪ ঘণ্টাই কাজ চলে এ মিলে।

গোপালপুর থানার ওসি মোশারফ হোসেন সমকালকে জানান, রোববার রাত ১০টার দিকে গোপালপুর পৌর শহরের ডুবাইলে এক হাজার মন ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন একতা চালের মিলের বয়লারটি ভেঙে পড়ে। এতে সেখানে কাজ করতে থাকা শ্রমিকরা বয়লারের নিচে চাপা পড়ে। পরে ঘটনাস্থল থেকে তিনজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা হয়েছে। আগামীকাল তাদের মরদেহ টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।