সৌদি আরবে প্রাইভেট কারের ধাক্কায় জনি মিয়া (২৬) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জনি মিয়া কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী পৌরসভার বাগরাইট এলাকার বিল্লাল মিয়ার ছেলে।

নিহত জনির পরিবার জানায়,তিনি সৌদি আরবের জিজান শহরে একটি কোম্পানিতে কাজ করতেন। রাতে ডিউটি শেষে রুমে ফিরে সকালের নাস্তা আনার জন্য জনি বাইসাইকেলে করে হোটেলে যাচ্ছিলেন। এ সময় পেছন দিক থেকে দ্রুতগামী একটি গাড়ি তাকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। জনি মিয়ার সহকর্মী হাকিম ফোন করে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। খবর পাওয়ার পর থেকে জনির পরিবারে চলছে শোকের মাতম।

জনির পরিবার আরও জানায়, সংসারে আর্থিক স্বচ্ছলতা আনতে ধার দেনা করে অতিকষ্টে মাত্র দেড় বছর আগে তিনি সৌদি আরব যান। এখনও সেই ধার দেনা শোধ হয়নি।

জনি মিয়ার বাবা বিল্লাল মিয়া কটিয়াদী বাসস্ট্যান্ডে একটি সাইকেলের দোকানে কাজ করেন।  তিনি জানান, তার দুই ছেলের মধ্যে জনি বড়। দেড় বছর আগে ধার দেনা করে বড় ছেলে জনি মিয়াকে সৌদি আরবে পাঠান তিনি। ছেলের পাঠানো টাকায় ইতোমধ্যে কিছু ধার দেনা পরিশোধ করা হয়েছে। এখনো অনেক ঋণ রয়ে গেছে। তিনি বলেন, কিভাবে এ ঋণ পরিশোধ করবো জানি না। সকালে জনির সহকর্মী মোবাইল ফোনে দুর্ঘটনার সংবাদ জানায়। ছেলের লাশটা যেন দ্রুত দেশে আনার ব্যবস্থা করা হয়, এজন্য সরকারের কাছে এ দাবি জানিয়েছেন তিনি।