হিজাব না পরায় ইরানের নৈতিকতা পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার ও পরে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে তরুণী মাশা আমিনির মৃত্যুতে বিক্ষোভ-সহিংসতায় প্রাণহানির সংখ্যা ৩১ ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে অন্তত ৫ জন নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যও রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার ষষ্ঠ দিনেও বিক্ষোভ হয় রাজধানী তেহরানসহ বেশ কয়েকটি শহরে। বিক্ষোভ দমাতে অভিযান চালাচ্ছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী, বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপ। এছাড়া, তেহরান ও কুর্দিস্তানের বেশ কিছু এলাকায় ইন্টারনেট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। খবর এএফপি ও গার্ডিয়ানের।

মাশা আমিনি।

বৃহস্পতিবার বিক্ষোভকারীরা একাধিক শহরে পুলিশের গাড়ি ও যানবাহনে আগুন দিয়েছে। কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তে গত বুধবার রাত থেকে ইন্টারনেটের ওপর কড়াকড়ি আরোপ করা হয়। আর ইউটিউব, ফেসবুক, টেলিগ্রাম, টুইটার এবং টিকটকের মতো সামাজিক মাধ্যমগুলো বন্ধ করে দেওয়ার পর দেশটিতে সাম্প্রতিক সময়ে সবচেয়ে বেশি ব্যবহূত হচ্ছিল ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপ।

এই দুই অ্যাপেও এখন আর প্রবেশ করতে পারছেন না ব্যবহারকারীরা। গত শুক্রবার শুরু হওয়া বিক্ষোভ প্রথম দিকে উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্র্রদেশ কুর্দিস্তানে সীমাবদ্ধ থাকলেও পরে তা ছড়িয়ে পড়ে দেশটির অন্তত ৫০টি শহরে।