মিথ্যা ঘোষণায় ছয় লাখ ৬০ হাজার সিগারেট আমদানি করে সোয়া ৮ কোটি টাকার শুল্ক ফাঁকির মামলায় মিমি লেদার কটেজের দুই মালিককে কারাগারে পাঠিয়েছেন চট্টগ্রামের আদালত।

রোববার মহানগর দায়রা জজ বেগম জেবুননেছার আদালত দুর্নীতির ওই মামলায় তাঁদের কারাগারে পাঠান।

আসামিরা হলেন- রাশেদুল ইসলাম কাফি ও গোলাম মোস্তফা।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পিপি মাহমুদুল হক মাহমুদ জানান, আসামিরা ২০১৮ সালে ব্যাগ, ক্যাপিটাল মেশিনারিজ অব সুজ মেকিং মেশিন আমদানির পরিবর্তে মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে শুল্কহারযুক্ত পণ্য সিগারেট আমদানি করেন। এরপর এসব পণ্য খালাসে ৮ কোটি ১৮ লাখ ৫ হাজার ১৮৩ টাকার রাজস্ব ফাঁকি দেন তাঁরা।

এ ঘটনায় কারাগারে পাঠানো দুই জনসহ ৯ জনকে আসামি করে মামলা করে দুদক। কাফি ও মোস্তফা সেই মামলায় আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে তা নামঞ্জুর করে তাঁদের কারাগারে পাঠান আদালত।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- মোফাজ্জেল হোসেন মোল্লা, আব্দুল গোফরান, জহুরুল ইসলাম, কামরুল হক, সুলতান আহম্মদ, ফিরোজ আহমেদ, আব্দুল্লাহ আল মাছুম ও সিরাজুল ইসলাম।